Monday, June 17, 2024

Kharagpur Market Crisis Over: পশ্চিম মেদিনীপুরে আলু বোঝাই করার সময় শ্রমিকের মৃত্যু! খড়গপুর পুলিশের উদ্যোগে মিটল ধর্মঘট

The retail market was left uncertain by an indefinite strike by other workers over the death of one worker while loading potatoes on a lorry. Finally, at the initiative of the police, the problem was solved within 24 hours. As a result, the residents of Kharagpur breathed a sigh of relief. Before Christmas, a smile of relief finally appeared on the faces of the city dwellers who were worried about such an incident. A laborer died of a heart attack while carrying a sack of potatoes in a lorry at Golbazar Janata Market in Kharagpur on Thursday afternoon. The workers demanded that the family of the deceased worker should pay Rs 5 lakh. Loading and unloading of all kinds of wholesale markets in the whole crowded market was stopped. Realizing the importance of the situation, IC Bishwaranjan Bandyopadhyay of Kharagpur Town Police Station intervened in the whole matter. At noon he sat down to discuss with all parties. Rafa was sold there for three and a half lakh rupees.

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: লরিতে আলু বোঝাই করতে গিয়ে এক শ্রমিকের মৃত্যুকে ঘিরে অন্যান্য শ্রমিকদের শুরু করা অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘটে অনিশ্চিত হয়ে পড়েছিল খুচরো বাজার। শেষমেষ পুলিশের উদ্যোগে সেই সমস্যার সমাধান হল ২৪ঘন্টার মধ্যে। ফলে হাঁফ ছেড়ে বাঁচল খড়গপুর শহরবাসী। বড়দিনের আগেই এমন ঘটনায় চিন্তিত শহরবাসীর মুখে অবশেষে স্বস্তির হাসি ফুটল যার পুরো কৃতিত্বই খড়গপুরের টাউন পুলিশের। অন্যদিকে স্বস্তি পেয়েছেন ব্যবসায়ীরাও। কারন ওই ধর্মঘটের ফলে শত শত টন আলু পেঁয়াজ মজুত হয়ে পড়েছিল যা কিনা এরপর পচেই যেত।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

উল্লেখ্য বৃহস্পতিবার বিকালে খড়গপুর শহরের গোলবাজার জনতা মার্কেটে এক পাইকারি ব্যবসায়ীর আলুর বস্তা লরিতে ওঠাবার সময় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় আদিত্য দেহরি নামে ৪৫ বছরের এক ঠিকা শ্রমিকের। তিনি ওই পাইকারি আলু ব্যবসায়ীর গুদামে কাজ ঠিকা শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন। ওড়িশার ঢেঙ্কানল জেলার গৈলা ডড়িশা গ্ৰামের ওই মৃত ঠিকা শ্রমিকের পরিবারকে পাঁচ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণের দাবিতে শুক্রবার সকাল থেকে গোলবাজার জনতা মার্কেটের সমস্ত রকমের আনাজ থেকে শুরু করে আলু সহ পেঁয়াজের পাইকারি ব্যবসায়ীর অধীনে কর্মরত ঠিকা শ্রমিকেরা বিক্ষোভ দেখান। তাঁরা জানিয়ে দেন দাবি না পূরণ হওয়া পর্যন্ত অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট চলবে।

এর ফলে পুরো জনতা মার্কেটে সমস্ত রকমের পাইকারি বাজারে লোডিং ও আনলোডিংয়ের কাজ বন্ধ হয়ে যায়। লরিগুলিতে সবজি থেকে শুরু করে আলু সহ পেঁয়াজ রসুন ও আদা বোঝাই হয়ে পড়ে থাকে। এই খড়গপুরের পাইকারি বাজারই হচ্ছে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা ও তার আশেপাশের জেলা গুলির বৃহত্তম পাইকারি বাজার। ফলে যে শুধু শুধু ব্যবসায়ীদের টন টন আলু পেঁয়াজ রসুন এবং আদা নষ্ট হওয়ার মুখে পড়েছিল তাই নয়। একটি বড় অংশের খুচরো বাজারেও সঙ্কট শুরু হয়ে যাওয়ার মুখে ছিল।

পরিস্থিতির গুরুত্ব বুঝে গোটা বিষয়টিতে হস্তক্ষেপ করেন খড়গপুর টাউন থানার আইসি বিশ্বরঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায়। দুপুরে তিনি সব পক্ষকে নিয়ে আলোচনায় বসেন। সেখানেই ঠিক হয় মৃত ঠিকা শ্রমিকের পরিবারকে সাড়ে তিন লক্ষ টাকা দেবেন মালিকপক্ষ। আর মৃতদেহ ময়নাতদন্ত থেকে শুরু করে ওড়িশার গ্ৰামের বাড়িতে নিয়ে গিয়ে শেষকৃত্য সম্পন্ন হওয়া পর্যন্ত সমস্ত খরচ বহন করবেন মালিকপক্ষ। থানার আইসির এই মধ্যস্থতায় ধর্মঘট উঠে যায়। খড়গপুর টাউন আইসি জানিয়েছেন, ত্রিপাক্ষিক আলোচনায় সমস্যা মিটে গিয়েছে ফলে বাজারে আলু পেঁয়াজ সহ অন্য সমস্যা নেই।

- Advertisement -
Latest news
Related news