Wednesday, May 22, 2024

Kharagpur-Digha: খড়গপুর আর দিঘা সফরে রেল জুড়ল ‘এলএইচবি’ কোচ! আরও আরামদায়ক যাত্রার সুফল পশ্চিম মেদিনীপুরবাসীর

Good news for the people of Kharagpur Medinipur. Now, not blue colour, this time you can go to Howrah or Purulia in red coach. This time also the most modern and comfortable railway coaches of India will be available for Digha. Instead of the old passenger coaches, the railways have started adding more advanced, more comfortable coaches to the locomotives of long-distance trains. At present in Bengal, four pairs of trains are being fitted with these high quality coaches, one of which is the HowrahPurulia Express. On the other hand, there is such a comfortable train for those who go to Digha. Railways use two types of bogies in long distance trains. One is an ICF (Integral Coach Factory) bogie and the other is an LHB (Linke-Hofmann-Busch of Germany) bogie. LHB bogies made with German technology are much more comfortable and safe. That is why from now on the blue color Purulia Express will be decorated in red or other colors. This train will run from next Monday (24th January).

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: আনন্দের খবর খবর খড়গপুর মেদিনীপুরবাসীর জন্য। আর নীল রঙ নয় এবার লালরঙের কোচে যেতে পারেন হাওড়া কিংবা পুরুলিয়া। অথবা দিঘা যাওয়ার জন্যও এবার মিলবে ভারতের সর্বাধুনিক এবং আরামদায়ক রেলওয়ে কোচ। পুরানো যাত্রীবাহী কোচ বদলে রেল আরও উন্নত,

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে
Then

আরও আরামদায়ক কোচ জুড়তে শুরু করেছে দূরপাল্লার রেলের ইঞ্জিনে। আর সারা ভারতের সঙ্গে বাংলায় আপাততঃ চার জোড়া ট্রেনে এই উন্নতমানের কোচ লাগানো হচ্ছে যার মধ্যে খড়গপুর মেদিনীপুর বাসী বেশি ব্যবহার এমন একটি এক্সপ্রেস ট্রেন রয়েছে। অন্যদিকে যাঁরা দিঘা যাবেন তাঁদের জন্যও রয়েছে এরকমই একটি আরামদায়ক ট্রেন।

রেলসূত্রে জানা গেছে খড়গপুর ও মেদিনীপুরবাসী হাওড়া বা কলকাতা যাওয়ার জন্য সর্বাধিক পুরুলিয়া এক্সপ্রেস ব্যবহার করেন। সেই পুরুলিয়া এক্সপ্রেসের আগের কোচ বদলে আনা হচ্ছে এই নতুন কোচ। যে কারনে এখন থেকে আর নীল রঙ পুরুলিয়া এক্সপ্রেস সাজবে লাল অথবা অন্য রঙে। আগামী সোমবার থেকেই ছুটবে এই ট্রেন।

Now

ঠিক একই ভাবে দিঘায় যাওয়ার জনপ্রিয় তাম্রলিপ্ত এক্সপ্রেসে সফরের আরাম বাড়িয়ে দিচ্ছে রেল। আগামী মঙ্গলবার থেকেই রাজধানী এক্সপ্রেসের বগি নিয়ে হাওড়া থেকে দিঘা যাতায়াত করবে তাম্রলিপ্ত এক্সপ্রেস। শুধু আরাম দেওয়াই নয়, রেলের এই বগিগুলি যাত্রীদের নিরাপত্তার জন্যও বেশি কার্যকর।

ভারতীয় রেল দূরপাল্লার ট্রেনে মূলত দুই রকমের বগি ব্যবহার করে। একটি আইসিএফ (Integral Coach Factory) বগি ও অন্যটি এলএইচবি (Linke-Hofmann-Busch of Germany) বগি। জার্মান প্রযুক্তিতে তৈরি এলএইচবি বগি অনেক বেশি আরামদায়ক এবং সুরক্ষিত। আইসিএফ বগি সাধারণত হয় নীল রঙের। কিন্তু লাল বা অন্য রঙ দেখে চেনা যায় এলএইচবি বগি। সম্প্রতি আরও উন্নতমানের এলএইচবি বগি তৈরি শুরু হয়েছে ভারতে। সেগুলি প্রথমে ব্যবহার করা হয় তেজস এক্সপ্রেস চালাতে। এখন একটি একটি করে রাজধানীতে তেজসের বগি ব্যবহার শুরু হয়েছে। রেলের যা পরিকল্পনা, তাতে আগামী কিছু দিনের সব রাজধানী এক্সপ্রেসই চলবে তেজসের বগি দিয়ে। অন্য দিকে, দেশের অনেক ট্রেনেই পুরনো আইসিএফ বগি সরিয়ে এলএইচবি বগি নিয়ে আসা হবে। সেই তালিকায় শুরুতেই রয়েছে বাংলার চার জোড়া ট্রেন।

রেল সূত্রে জানা গিয়েছে, ২৫ জানুয়ারি থেকে আপ ও ডাউন হাওড়া-দিঘা তাম্রলিপ্ত এক্সপ্রেসে যুক্ত হবে এলএইচবি বগি। তার আগে ২৪ জানুয়ারি থেকে একই বগি যুক্ত হবে হাওড়া-পুরুলিয়া এক্সপ্রেসে। একই দিনে একই সুবিধা শুরু হবে আপ ও ডাউন হাওড়া-রাঁচি এক্সপ্রেস। আর সাধারণতন্ত্র দিবসের দিন, অর্থাৎ ২৬ জানুয়ারি থেকে এলএইচবি বগি নিয়ে চলবে হাওড়া-রাঁচি ইন্টারসিটি এক্সপ্রেস। রেল সূত্রে জানা গেছে পুরানো কোচগুলি যেখানে সর্বাধিক ১১০ কিলোমিটার প্রতিঘন্টায় ছুটতে পারত সেখানে এই নতুন কোচগুলিকে সর্বাধিক ১৬০ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টায় ছোটানো যাবে। আর ঝাঁকুনিও অনেক কমে যাবে।

- Advertisement -
Latest news
Related news