Tuesday, June 25, 2024

পূর্ব মেদিনীপুরের তমলুকে সিসিটিভি ক্যামেরায় রঙ স্প্রে করে এটিএম ভাঙল দুষ্কৃতীদল! তদন্তে পুলিশ

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: সিসিটিভি ক্যামেরায় রঙ স্প্রে করে এটিএম ভেঙে ফেলল দুষ্কৃতীদল। দুঃসাহসিক এই ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুরের তমলুকে। যদিও শেষ অবধি এটিএমের ভল্ট না ভাঙতে পারায় রক্ষা পেয়েছে এটিএমে থাকা টাকা। বুধবার রাতে এই ঘটনাটি ঘটেছে হলদিয়া-মেচেদা রাজ্য সড়কের পাশে অবস্থিত অবস্থিত ইন্ডিয়ান ওভারসিজ ব্যাঙ্কের এটিএম কাউন্টারে। বৃহস্পতিবার সকালে বিষয়টি নজরে আসে স্থানীয় মানুষজনের। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছায় তমলুক থানার পুলিশ এবং সংশ্লিষ্ট ব্যাঙ্কের লোকজন।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

পুলিশ জানিয়েছে শুরুতে টাকা লুঠ হয়েছে বলে মনে হলেও পরে পরীক্ষা নিরীক্ষার পর জানা যায় টাকা লুট করতে পারেনি দুষ্কৃতীরা। পুলিশ আরও জানিয়েছে ওই এটিএমে নিরাপত্তারক্ষী বিহীন। সেই সুযোগ নিয়ে এটিএমে থাকা সিসিটিভি ক্যামেরায় লাল রং স্প্রে করে দেয়। তারপরই ভেঙে ফেলা হয় এটিএমের সামনের অংশ।

তমলুকের মহকুমা পুলিশ আধিকারিক আলি আবুবক্কর বলেন, ‘ এটিএম ভেঙে টাকা লুঠপাট চালানোর চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্তু ভল্টের দরজা না ভাঙতে পারার কারণে টাকা চুরি যায়নি। ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে। এটিএম কাউন্টারের পাশাপাশি স্থানীয় এলাকায় থাকা সিসিটিভির ফুটেজ সংগ্ৰহ করা হচ্ছে। সেগুলি খতিয়ে দেখে দুষ্কৃতীদের চিহ্নিতকরণের চেষ্টা করা হবে।’

ঘটনায় ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেললেও
প্রশ্ন উঠেছে এটিএমে নিরাপত্তারক্ষী না থাকা নিয়েও। রক্ষীহীন এটিএম ভেঙে টাকা লুটের ঘটনা নতুন কিছু নয়। যে কারনে এটিএম রক্ষী রাখা বাধ্যতামূলক করা হয়েছিল। তারপরও কেন নিরাপত্তারক্ষী রাখা হয়না তা নিয়ে ক্ষুব্ধ এলাকার বাসিন্দারা। তাঁরা আরও বলেছেন, শুধুই এটিএমের নিরাপত্তা নয় টাকা তুলতে যাওয়া মানুষের নিরাপত্তা ও অসুবিধার কথা মাথায় রেখেও এটিএমে নিরাপত্তাকর্মী থাকা দরকার।

অনেক সময় সাধারণ মানুষ এটিএম ব্যবহার করতে গিয়ে নানা সমস্যার সম্মুখীন হন। ব্যাঙ্কের চাপ কমাতে যদি মানুষকে এটিএম মুখী করা হয় তবে এটিএম নিরাপদ ও সুবিধাদায়ক হবেনা কেন? পূর্বে এটিএমে নিরাপত্তারক্ষী না থাকলেও রাতে ওই এলাকায় পুলিশ দু’জন সিভিক ভলান্টিয়ার মোতায়েন রাখত এখন তাদেরও দেখা যায় না।

- Advertisement -
Latest news
Related news