Tuesday, June 25, 2024

Bengal Municipal Poll: মেদিনীপুরে পুড়েছিল তৃনমূলের গাড়ি, শনিবার পুড়ল বিজেপির টেন্ট, খড়গপুরে দুই প্রার্থীর রনংদেহী মূর্তি! কোন্নগরে নারকীয় প্রহার প্রার্থীকে

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব প্রতিবেদন: রাজ্য জুড়ে শুরু হয়েছে পুরনির্বাচন যার উত্তেজনা ছড়িয়েছে শনিবার রাত থেকেই। ব্যারাকপুর ও কাঁথির বিভিন্ন অংশ থেকে গন্ডগোলের খবর মিলছে। শুক্রবার রাতে মেদিনীপুর শহরে এক তৃনমূল কংগ্রেস কর্মীর গাড়িতে আগুন লাগানো হয়েছে অন্যদিকে বিজেপি কর্মীদের একটি টেন্ট পুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে অজ্ঞাত পরিচয় দুষ্কৃতিদের বিরুদ্ধে। পুলিশের তরফে দাবি করা হয়েছিল যে রাতের শহরে ব্যাপক পুলিশি ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে কিন্তু খোদ মেদিনীপুর পুরসভার প্রশাসক ও ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের তৃনমূল প্রার্থী সৌমেন খান অভিযোগ করেছেন পালবাড়ি এলাকায় রাতে দুষ্কৃতিরা দাপিয়ে বেড়িয়েছে এবং তারাই তৃনমূল কর্মীর গাড়ি পুড়িয়েছে। গাড়ি পোড়ানো হয়েছে তৃনমূল কর্মী রাজ কুমার পালের। রাজকুমারের দাবি , “রাত থেকেই এলাকায় লোকজন ছোটাছুটি করছিল।এই এলাকার তৃণমূলের প্রার্থী সৌমেন খান বলেন, “বহিরাগত লোকজন নিয়ে এসে এখানকার একদল লোক সন্ত্রাসের আবহাওয়া তৈরীর চেষ্টা করছে। তাই তৃণমূল কর্মীর এই গাড়িতে আগুন লাগিয়ে দিয়েছে তারা।”

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

ওদিকে মেদিনীপুরের সিপিএম প্রার্থী শনিবার রাতে জানান, শহর জুড়েই দাপিয়ে বেড়াচ্ছে বাইক বাহিনী। মেদিনীপুর পুরসভা সমাজবিরোধীদের মুক্তাঞ্চলে পরিণত হয়েছে শনিবার রাতের বেলাতেই। বিজেপির তরফে অভিযোগ করা হয়েছে শনিবার রাতেই মেদিনীপুর পুরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডে তাঁদের প্রার্থী কুহেলি দত্তের সমর্থনে কর্মীদের বসার জন্য একটি টেন্ট অফিস পুড়িয়ে দিয়েছে দুষ্কৃতিরা। ওদিকে খড়গপুর শহরে উত্তেজনা চরমে ওঠে ২২নম্বর ওয়ার্ডের ট্রাফিক হাইস্কুলের বুথে। তৃনমূল ও কংগ্রেস প্রার্থীর বুথে ঢোকা নিয়ে বচসা চরমে ওঠে। দুই প্রার্থীই একে অপরের বিরুদ্ধে ভোটারদের প্রভাবিত করার অভিযোগ করেন। দুই প্রার্থীর বচসাকে ঘিরে উত্তেজনা ছড়ায় কর্মীদের মধ্যে। পুলিশ এসে দুইপক্ষকেই হটিয়ে দেয়।

এদিন জলপাইগুড়ি ১২ নম্বর ওয়ার্ডে কংগ্রেস প্রার্থীকে বুথ থেকে বার করে দেবার অভিযোগ উঠল পুলিসের এক ডিএসপি-র বিরুদ্ধে। সকালে ভোটগ্রহণ শান্তিপূর্ণ ভাবে শুরু হলেও কিছুক্ষণ পরেই উত্তেজনা সৃষ্টি হয় জলপাইগুড়ি হাই স্কুল বুথে। কংগ্রেসের তরফে অভিযোগ করা হয় বাইরের লোকজন বুথের ভেতরে রয়েছে কিন্তু পুলিসের এক ডিএসপি। অপরদিকে ডিএসপি হেডকোয়াটার্স পক্ষ থেকে এই অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে।কোচবিহার পুরসভার ১৯ নম্বর ওয়ার্ডের অন্তর্গত মহারানি ইন্দিরা দেবী হাইস্কুলে ১৭৯ বুথে তৃণমূলের বিরুদ্ধে ভুয়ো এজেন্ট বসানোর অভিযোগ। বারংবার তিনি বিরোধীদের এজেন্টকে ধমকাচ্ছিলেন বুথের ভিতরে। বিরোধীদের অভিযোগে পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়। যদিও তৃণমূল প্রার্থী অভিজিৎ মজুমদার জানিয়েছেন, ধৃত ব্যক্তি তৃণমূলের কেউ নয়।

কাঁথি এবং বহরমপুর পুরসভায় বিরোধী এজেন্টদের মারধর ও বুথ থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। কাঁথি পুরসভার ২০ এবং ২১ নম্বর ওয়ার্ডে বুথ জ্যামের অভিযোগ উঠেছে তৃনমূলের বিরুদ্ধে। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃনমূল কংগ্রেস। বহরমপুর পুরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের জিটি আই স্কুলে ৪৬ নম্বর বুথের ভেতরে কংগ্রেস এজেন্টকে ব্যপক মারধরের অভিযোগ ওঠে । ঘটনাস্থলে যান অধীর চৌধুরী। শনিবার রাতে কোন্নগর পুরসভার ১০ নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপি প্রার্থী কৃষ্ণা ভট্টাচার্যকে নৃশংসভাবে মারধরের অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের দিকে। রক্তাক্ত করা হয়েছে তাঁর দুটি পা।কোন্নগর বটতলা জিটি রোড অবরোধ করে বিজেপি কর্মীরা। কৃষ্ণা ভট্টাচার্য নির্বাচনী কার্যালয় থেকে ফেরার সময় ২৪ পল্লীর কাছে কয়েকজন দুষ্কৃতী তাঁকে ঘিরে ধরে মারধরে করে বলে অভিযোগ।

- Advertisement -
Latest news
Related news