Saturday, May 25, 2024

School service commission: আরও ৫৪২ জনের বেতন বন্ধের নির্দেশ দিল আদালত! SSC নিয়ে ল্যাজে গোবরে রাজ্য

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: আগেই ২৫ জনের বেতন বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। এবার স্কুলে গ্রুপ ডি নিয়োগ মামলায় আরও ৫৪২ জনের বেতন বন্ধের নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট। গোটা বিষয় নিয়ে ল্যাজে গোবরে অবস্থা রাজ্য সরকারের কারন এরকম অবস্থা চলতে থাকলে পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে সেটাই এখন মাথা ব্যথার। হাইকোর্ট জানিয়ে দিয়েছে ওই প্রার্থীদের ২০১৯ সালের ৪ মে’র পর নিয়োগ করা হয়েছে কিনা এবং তাঁরা এখন কাজ করছেন কিনা, তা খতিয়ে দেখে স্কুল সার্ভিস কমিশন এবং মধ্যশিক্ষা পর্ষদকে সেই নির্দেশ কার্যকর করতে বলেছেন বিচারপতি। কারন আদালত মনে করছে ওই তারিখের পর নিযুক্ত ব্যক্তিদের নিয়োগ নিয়ে দুর্নীতি হয়েছে।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

কয়েকদিন আগে গ্রুপ ডি নিয়োগ মামলায় প্রাথমিকভাবে সিবিআই অনুসন্ধানের নির্দেশ দিয়েছিল কলকাতা হাইকোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চ। বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, পর্ষদ এবং কমিশনের হলফনামা থেকেই স্পষ্ট যে নিয়োগ প্রক্রিয়ার অস্বচ্ছতা আছে। যেহেতু দুটিই সংস্থা রাজ্যের, তাই প্রাথমিকভাবে অনুসন্ধান করবে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা বা সিবিআই। আগামী ২১ ডিসেম্বরের মধ্যে প্রাথমিক রিপোর্ট দিতে হবে কেন্দ্রীয় সংস্থাকে।

তারপর পরবর্তী পদক্ষেপ নির্ধারণ করবে হাইকোর্ট। সেই রায়ের বিরুদ্ধে ডিভিশন বেঞ্চে যায় রাজ্য সরকার। তাতে কিছুটা স্বস্তি পায় কমিশন এবং পর্ষদ। বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডন এবং বিচারপতি রবীন্দ্রনাথ সামন্তের ডিভিশন বেঞ্চ তিন সপ্তাহের জন্য সিবিআই অনুসন্ধানের উপর স্থগিতাদেশ দেয়। তবে তথ্যপ্রমাণ যাতে কোনওভাবেই লোপাট না হতে পারে তার জন্য স্কুল সার্ভিস কমিশন এবং মধ্যশিক্ষা পর্ষদকে নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ।

তারই মধ্যে বৃহস্পতিবার আবারও সিঙ্গল বেঞ্চে মামলার শুনানি হয়। সেখানে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় আরও ৫৪২ জনের বেতন বন্ধের নির্দেশ দেন। যাঁরা বেআইনিভাবে চাকরি পেয়েছিলেন বলে আদালতে অভিযোগ করা হয়েছিল। যদিও বিচারপতি জানিয়েছেন, ২০১৯ সালের ৪ মে’র পর নিয়োগ করা হয়েছে কিনা এবং তাঁরা এখন কাজ করছেন কিনা, তা খতিয়ে দেখে স্কুল সার্ভিস কমিশন এবং মধ্যশিক্ষা পর্ষদকে সেই নির্দেশ কার্যকর হবে।

উল্লেখ্য ২৫জনের নিয়োগ নিয়ে SSC এবং মধ্যশিক্ষা পর্ষদের টানা পোড়েনের মাঝেই আইনজীবী বিকাশ ভট্টাচার্য নথি জমা করতে গিয়ে জানিয়েছিলেন আরও ৫০০জনের বেশি নিয়োগে একই দুর্নীতি হয়েছে। বৃহস্পতিবার সেই মামলার শুনানির পরই এই নির্দেশ দেওয়া হয়। গোটা বিষয় নিয়ে রাজ্য জুড়ে জোর চর্চা শুরু হয়েছে।

- Advertisement -
Latest news
Related news