Monday, May 20, 2024

Weather Alert: শনিবার থেকেই বৃষ্টি! বৃষ্টি খড়গপুর মেদিনীপুরেও, কৃষকদের সতর্কবার্তা পাঠালো করল রাজ্য

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: আর ২৪ ঘন্টার মধ্যেই আবহাওয়ার ব্যাপক পরিবর্তন হতে চলেছে। উত্তর ভারতে তৈরি হওয়া পশ্চিমি ঝঞ্জার কারনে থমকে গেছে উত্তুরে বাতাস। অন্যদিকে সেই সুযোগে ছুটে আসছে জলীয় বাষ্প যা সঞ্চিত হচ্ছে বাংলার উপকূল জেলাগুলির বাতাসে। হতে চলেছে বৃষ্টি। শনিবার থেকেই শুরু হওয়া এই বৃষ্টি চলবে সোমবার অবধি। তারই পরিপ্রেক্ষিতে রাজ্যের কৃষকদের জন্য বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সতর্কতা মূলক ব্যবস্থা নেওয়ার পরামর্শ পাঠিয়েছে রাজ্যের কৃষিদপ্তর। সেই পরামর্শে বলা হয়েছে কী করা উচিত, কী নয়।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

কৃষিদপ্তর সূত্রে আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস উল্লেখ করে বলা হয়েছে আগামী শনি, রবি ও সোমবার পশ্চিমবঙ্গের কয়েকটিজেলায় ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। পশ্চিমী ঝঞ্ঝার কারণে হওয়া বৃষ্টিপাতের ফলে ক্ষতি হতে পারে ফসলের। তাই কয়েকটি নিয়ম যেন মেনে চলেন কৃষকরা। এই নিয়মগুলি মানলে রাজ্যে কৃষি ফসলের ক্ষয়ক্ষতি বহুলাংশে রোধ করা সম্ভব হবে বলে জানানো হয়েছে ওই নির্দেশিকায়। মোট সাত দফা পরামর্শে বলা হয়েছে, আলু,সব্জি, তৈলবীজ রয়েছে এমন ক্ষেতে পর্যাপ্ত নালা কেটে জল নিকাশির ব্যবস্থা করুন যাতে যাতে জল জমতে না পারে।

বৃষ্টি ও শিলাবৃষ্টির আগেই পরিণত হয়ে গেছে এমন ফসল মাঠ থেকে তুলে নিয়ে বাড়িতে বা ছাউনির নীচে রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। স্যাঁতস্যাঁতে আবহাওয়া থেকে মাঠের আলুকে রক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় স্প্রে করতে হবে। এ ছাড়াও বৃষ্টির আগে বা পরে ফসলে ছত্রাকজনিত রোগ প্রতিরোধের জন্য প্রয়োজনীয় কীটনাশক স্প্রে করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে । সর্ষের ক্ষেতেসাদা মরিচা রোগ রুখতে প্রতিষেধক ব্যবহার করার বলা হয়েছে। পাশাপাশি, আবহাওয়ার খবরাখবরের দিকে সজাগ দৃষ্টি রাখতে বলা হয়েছে। উল্লেখ্য কিছুদিন আগেই জাওয়াদের জেরে ভয়ঙ্কর ক্ষতি হয়েছিল আলু সহ বিভিন্ন ফসলের। সেদিকে নজর রেখেই কৃষি দপ্তর কৃষকদের আবহাওয়ার দিকে সতর্ক নজর রাখতে বলেছে।

কৃষিদপ্তরের পক্ষ থেকে গত কয়েকবছর ধরেই আমপান, বুলবুল, ইয়াস, জাওয়াদের ঘুর্ণিঝড়ের সময়ও এই ধরনের সতর্ক বার্তা দেওয়া হয়েছিল। তাতে প্রচুর পরিমাণে ফসল ক্ষতির হাত থেকে বাঁচানো সম্ভব হয়েছিল বলে মনে করছে কৃষি দপ্তর। কৃষিদপ্তরের অভিমত এখনও বাংলার চাষ পুরোপুরি প্রকৃতি নির্ভর। আর প্রকৃতির খাম খেয়ালিপনা উত্তরোত্তর বেড়েই চলেছে। গ্লোবাল ওয়ার্মিং ও অন্যান্য কারনে এই খাম খেয়ালিপনা বাড়বেই। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে কৃষকদের দৈনন্দিন আবহাওয়ার ওপর নজর রাখতেই হবে।

- Advertisement -
Latest news
Related news