Saturday, May 25, 2024

Sabang: ৬ মাসের মধ্যে ডবল প্রমোশন মানস ভূঁইয়ার! উচ্ছাস অনুগামীদের

- Advertisement -spot_imgspot_img

শশাঙ্ক প্রধান: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃতীয় মন্ত্রীসভায় ঠাঁই পাওয়ার ৬মাসের মধ্যেই আরও একটি মন্ত্রকের দায়িত্ব পাওয়ায় উচ্ছসিত মানস ভূঁইয়ার অনুগামীরা সম্বর্ধিত করলেন তাঁদের প্রিয় দাদাকে। বুধবার তাই নিয়েই সরগরম থাকল সবং। মানস নিজেও এই জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করলেন মূখ্যমন্ত্রী ও সবং তথা পশ্চিম মেদিনীপুরবাসীর প্রতি। তৃতীয়বারের জন্য মূখ্যমন্ত্রী হবার পর তাঁর মন্ত্রীসভায় জলসম্পদ উন্নয়ন দপ্তরের দায়িত্ব মানস ভূঁইয়াকে দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মঙ্গলবার মন্ত্রীসভার সম্প্রসারনে তারই পাশাপাশি ক্রেতা সুরক্ষা দপ্তরের অতিরিক্ত দায়িত্ব দেওয়া হয় সবংয়ের বিধায়ককে। সেই উপলক্ষ্যেই একটি সম্বর্ধনা সভার আয়োজন করা হয়েছিল সবং তৃনমূলের কার্যালয়ে। সেখানেই নিজের বক্তব্য রাখতে গিয়ে এই কৃতজ্ঞতা জানান রাজ্যসভার প্রাক্তন সাংসদ।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

বুধবার বিকেলে সবং ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের উদ্যোগে মন্ত্রী মানস রঞ্জন ভূঁইয়া কে তেমাথানী বাজার থেকে বাইক র‍্যলি করে সবং ব্লক পার্টি অফিসে নিয়ে যায়,সেখানে সবং, পিংলার অঞ্চল থেকে থেকে শুরু করে সংবর্ধনা জানান। সবং ব্লকের তৃনমূল কর্মী সমর্থকরা সবং থেকে মানস রঞ্জন ভূঁইয়াকে ক্রেতা সুরক্ষা মন্ত্রী দেওয়ায় ধন্যবাদ জানিয়েছেন।
মন্ত্রী বলেন মূখ্যমন্ত্রী আমার উপর আস্থা রেখেছেন, আমি ঈশ্বেরর কাছে প্রার্থনা করি যেন মানুষের পাশে থেকে কাজ করবো,আগামীদিনে মানুষের সেবায় আরও নিযুক্ত হতে পারি।

এদিন সবং বিধায়ক জানান যে তাঁর মনে পড়ছে সদ্য প্রয়াত রাজ্যের পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের কথা। মানস জানিয়েছেন মৃত্যুর কিছুক্ষণ আগেও কথা হয়েছিল ছাত্র আন্দোলনের নেতৃত্ব সেই মানুষটির সঙ্গে যিনি অবাক হয়েছিলেন মানস ভূঁইয়া এখনও এমএলএ হোস্টেলে আছেন জেনে। মানস জানান, সুব্রত মুখোপাধ্যায়কে বিশেষভাবে স্মরণ করার জন্য একটি সভা আয়োজন করা হবে সবংয়ে।

এদিন নিজের সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখতে গিয়ে মানস ভূঁইয়া বলেন পেট্রোল ডিজেলের ওপর থেকে সামান্য সেস প্রত্যাহার করে জনদরদী হওয়ার ঘৃণ্য কৌশল অবলম্বন করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বিজেপিকে নামিয়ে দিয়েছেন রাজ্যগুলিকেও সেস কমানোর আন্দোলনে। অথচ কেন্দ্র যে পরিমান কর রাজ্য থেকে তুলে নিয়ে যায় এবং সেই বাবদ রাজ্যকে যা ফিরিয়ে দেওয়ার কথা তা দেয়না।

মানস বলেন, কেন্দ্রের উচিৎ পুরো সেস প্রত্যাহার করা যাতে পেট্রোল ডিজেলের দাম ৩০/৪০ টাকায় নেমে আসে। এদিন পুরো অনুষ্ঠানের প্রধান পৃষ্ঠপোষক ছিলেন তৃনমূলের ঘাটাল সাংগঠনিক জেলার চেয়ারম্যান তথা সবংয়ের তৃনমূল নেতা
অমল পন্ডা। উপস্থিত ছিলেন পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি হাজরা বিবি সহ একাধিক তৃনমূল নেতৃত্ব।

- Advertisement -
Latest news
Related news