Saturday, April 20, 2024

Madhyamik Result: মাধ্যমিকে জয় জয়কার পশ্চিম মেদিনীপুরের! রাজ্যে দ্বিতীয় ঘাটালের রৌনক মন্ডল, সপ্তম অষ্টম রামকৃষ্ণ মিশন, দশম ডেবরার রাধামোহনপুর

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: মাধ্যমিককে এক সাথে চার-চারটি শীর্ষ স্থান দখল করে রাজ্যের মধ্যে সেরা জেলা পশ্চিম মেদিনীপুর। আজ ৩রা জুন , মাধ্যমিকের মেধা তালিকা প্রকাশ হওয়ার পর দেখা যায় মেধা তালিকার প্রথম দশের মধ্যে রয়েছে পশ্চিম মেদিনীপুরের ৪ পড়ুয়া। ঘাটাল বিদ্যাসাগর উচ্চমাধ্যমিক বিদ্যালয়ের রৌনক মন্ডল রাজ্যে দ্বিতীয় স্থান দখল করেছে। উল্লেখ্য এবার মাধ্যমিকে প্রথম হয়েছেন যে দুই পড়ুয়া তাঁর একজনের নামও রৌনক মন্ডল।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে
রৌনক মন্ডল, দ্বিতীয়

বর্ধমানের রৌনক বর্ধমান সিএমএস স্কুলের ছাত্র অন্যদিকে আরেক প্রথম অর্নব ঘোড়াই বাঁকুড়ার রামহরিপুর রামকৃষ্ণ মিশন হাইস্কুলের ছাত্র। এঁদের প্রাপ্ত নম্বর ৬৯৩। ঘাটালের রৌনক মন্ডল মাত্র ১নম্বর অর্থাৎ ৬৯২ নম্বর পেয়ে রাজ্যে দ্বিতীয় হয়েছে। তাঁরই সাথে যুগ্ম দ্বিতীয় হয়েছেন মালদহের কৌশিকী সরকার। ঘাটাল পৌরসভার কোন্নগরের বাসিন্দা রৌনকের বাবা বিদ্যসাগর বিদ্যালয়েরই শিক্ষক বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।

এবার জেলায় উল্লেখযোগ্য ফল করেছে মেদিনীপুর শহরে অবস্থিত রামকৃষ্ণ মিশন বিদ্যালয়। রাজ্যের মধ্যে সপ্তম এবং অষ্টম স্থান বেরিয়ে এসেছে এই স্কুল থেকে। সপ্তম স্থান অধিকার করেছে রণিত সাউ (৬৮৭) আর অষ্টম স্থান পেয়েছে দেবমাল‍্য নিয়োগী (৬৮৬)।

বাবা মায়ের সাথে অয়ন কুমার পাল (দশম)

উল্লেখ্য রাজ্যে এবার মোট ১০জন সপ্তম স্থান এবং ২২ জন অষ্টম স্থান অর্জন করেছে। পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার ডেবরা থেকেও এসেছে সুসংবাদ।ডেবরার রাধামোহনপুর বিবেকানন্দ হাইস্কুলের অয়ন কুমার পাল (৬৮৪) দশম স্থান দখল করেছে। রাজ্যে এই একই নম্বর পেয়ে মেধা তালিকায় মোট ৪০জনের নাম রয়েছে ১০ম স্থানে।

উল্লেখ্য করোনাকাল কাটিয়ে দু’বছর পর এবছরই প্রথম মাধ্যমিক পরীক্ষা শুরু হয়েছে। গত ৭ মার্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা শুরু হয়। এ বছর পরীক্ষা দিয়েছিল ১১ লক্ষের বেশি ছাত্রছাত্রী। যার মধ্যে ছাত্রীর সংখ্যা ৬ লক্ষের বেশি। যা ছাত্রদের থেকে প্রায় ১১ শতাংশ বেশি। পরীক্ষা শেষ হওয়ার ৭৯ দিনের মধ্যে ফল প্রকাশ করল পর্ষদ। এ বছর মাধ্যমিক পরীক্ষার জন্য আবেদন করেছিল ১১,২৭,৮০০ জন, পরীক্ষা দিয়েছে ১০,৯৮৭৭৫ জন, পাশ করেছে ৯,৪৯,৯২৭ জন। পরীক্ষা বাতিল হয়েছে ১১ জনের। সেই অনুযায়ী, এ বছর পাশের হার ৮৬.৬০ শতাংশ। এ বছর পাশের হার গত বছরের তুলনায় বেশি।

ইতিমধ্যেই মধ্যশিক্ষা পর্ষদের তরফে আগামী বছরের পরীক্ষার সূচি অনুমোদনের জন্য পাঠানো হয়েছে স্কুল শিক্ষা দফতরের কাছে। পর্ষদ সূত্রে খবর, সূচি অনুমোদিত হলেই আজই সাংবাদিক সম্মেলনে তা ঘোষণা করা হতে পারে। সে ক্ষেত্রে ফেব্রুয়ারির শেষ সপ্তাহ থেকেই আগামী বছরের মাধ্যমিক পরীক্ষা শুরু করতে চায় পর্ষদ। ২০২২-এর তুলনায় পরীক্ষার সময়সীমা খানিকটা এগিয়ে আনতে চায় মধ্যশিক্ষা পর্ষদ।

- Advertisement -
Latest news
Related news