Monday, May 20, 2024

Ghatal: বিজয় মিছিলে না যাওয়ায় ১০০দিনের কাজ বন্ধের অভিযোগ ঘাটালে! অভিযোগ অস্বীকার তৃনমূলের

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: বিধানসভা উপনির্বাচনে চারটি কেন্দ্রেই নিরঙ্কুশ জয় পেয়েছে রাজ্যের শাসকদল। সেই উপলক্ষ্যে বিজয় মিছিলের আয়োজন করা হয়েছিল পশ্চিম মেদিনীপুরের ঘাটালে। খবর দেওয়া হয়েছিল গ্রামে গ্রামে। তাস্বত্বেও মিছিলে অংশ না নেওয়ায় প্রায় ৫০জন নারী-পুরুষকে ১০০দিনের কাজ থেকে বসিয়ে দেওয়া হয়েছে এমনই অভিযোগ আনলেন মনসুখার কাজ হারানো বাসিন্দারা। যদিও তৃনমূলের তরফে সেই অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

কাজ থেকে বসিয়ে দেওয়া এক মহিলা জবকার্ডধারীনী বলেছেন, ‘ মঙ্গলবার যখন মিছিলে যাওয়ার কথা গ্রামে বলা হয় তখন আমি শুনতে পাইনি। অনেক পরে জানতে পারি আমরা। আর সেকারণেই মিছিলে যেতে পারিনি। বুধবার কাজ করতে এলে আমাদের কাজ করতে দেওয়া হয়নি। পরিস্কার বলা হয়েছে যারা মিছিলে আসেনি তাদের কাজ দেওয়া হবেনা। এও বলা হয়েছে যদিও কখনও কাজে নেওয়া হয় তবে নিজের বুথ এলাকায় কাজ দেওয়া হবেনা। আমরা গরিব মানুষ, ১০০দিনের কাজেই আমাদের সংসার চলে কারন আমাদের জায়গা জমি নেই। এখন মাঝ রাস্তায় কাজ বন্ধ করে দিলে খাব কী?”

ঘাটালের বিজেপি বিধায়ক শীতল কপাট জানিয়েছেন, ‘এই রাজনৈতিক প্রতিহিংসা নতুন কিছু নয়। এখানে তৃনমূল বিধায়ক পদে পরাজিত হওয়ার পর থেকেই এটা চলছে। যে সমস্ত বুথে বিজেপি লিড করেছে সেই সব এলাকা বেছে বেছে উন্নয়নের কাজ বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। মানুষকে ১০০দিনের কাজ করতে দেওয়া হচ্ছেনা। মনসুখায় যাঁদের ক্ষেত্রে এই ঘটনা হয়েছে সেখানেও বিজেপি ভালো ভোট পেয়েছিল। ওই সমস্ত মানুষকে টাইট দেওয়া হচ্ছে সরকারি প্রকল্প থেকে বঞ্চিত করে। সরকারি কাজে দলীয় প্রতিহিংসা চরিতার্থ করা হচ্ছে। মানুষকে জোর করে তৃনমূলের বিভিন্ন কর্মসূচীতে যেতে বাধ্য করা হচ্ছে। তারপরেও কেউ না গেলে তাকে ভাতে মারার চক্রান্ত করা হচ্ছে।’

তৃনমূলের পক্ষ থেকে অবশ্য এই অভিযোগ অস্বীকার করে বলা হয়েছে, একটি অসত্য ঘটনাকে নিয়ে ভুল প্রচার করছে বিজেপি। তৃনমূলের ঘাটাল সাংগঠনিক কমিটির সদস্য বিকাশ কর জানিয়েছেন, ‘ঘটনাটি আদৌ এরকম নয়। যেখানে ওই রাস্তার কাজ হচ্ছিল সেখানে ও তার আশেপাশে মাটি পেতে অসুবিধা হচ্ছে বলেই কিছুজনকে কাজ করতে না বলা হয়েছে। মাটি পাওয়া গেলে ফের কাজ হবে। বিষয়টিকে নিয়ে অযথা রাজনীতি করা হচ্ছে।’ বিজেপির পাল্টা দাবি, সংশ্লিষ্ট এলাকায় পর্যাপ্ত মাটি রয়েছে জেনেই ওই রাস্তার পরিকল্পনা করা হয়েছিল। মাঝ রাস্তায় মাটি কম হয়ে যায় কী করে? আর তা হল মিছিলের পরই। তাঁরা বলেন, স্থানীয় তৃনমূল নেতৃত্ব স্পষ্ট জানিয়েছে মিছিলে যাইনি বলেই আমাদের কাজ দেওয়া হবেনা।

- Advertisement -
Latest news
Related news