Saturday, April 20, 2024

Kunal Ghosh: মনমোহন সিংহের মৃত্যু নিয়ে ভুয়ো খবর, পার্থকে তোপ কুণালের! ভুল হয়ে গেছে: হুমায়ুন কবীর

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহের মৃত্যু হয়েছে এমনই ভুয়ো খবর ছড়িয়ে পড়েছিল বাংলা জুড়ে। বিশেষ করে শাসকদলের দুই নেতা প্রাক্তন শিক্ষা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও কারিগরী শিক্ষা দপ্তরের মন্ত্রী হুমায়ুন কবীরের ফেসবুক পেজে মনমোহন সিংহের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে করা পোস্টে তোলপাড় হয়ে যায় রাজ্য। যখন মনমোহন সিংহ প্রয়াত বলে বাংলায় জোর গুজব তখন তিনি সোনিয়া গান্ধীর সাথে একটি মিটিং করছেন বলে জানাও যায়। প্রকাশ্যে আসে সেই ছবিও। কিছুক্ষনের মধ্যেই অবশ্য কোথাও একটা ভুল হয়েছে বুঝতে পেরে নিজের পেজ থেকে পোস্ট সরিয়ে নেন দুজনেই। মন্ত্রী হুমায়ুন কবীর জানান, ‘ স্যরি! ভুল হয়ে গেছে।’ ওদিকে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ও লিখেছিলেন, “মনমোহন সিংহের আচমকা প্রয়াণে শোকস্তব্ধ।” ভুল বুঝতে পেরে সেটি ডিলিট করে দিয়ে পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানান, তাঁর ফেসবুক পেজ থেকে অন্য কেউ এই পোস্টটি শেয়ার করেছে এবং এটি ভুল করেই হয়েছে।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

বিতর্ক এখানেই থেমে যেতে পারত কিন্তু এই পোস্ট নিয়ে তৃনমূলের রাজ্য মুখপাত্র কুণাল ঘোষের পাল্টা টুইট কাণ্ডে বিতর্কের রেশ ছড়ালো বাংলার রাজনীতিতে। বর্তমান সময় তৃণমূল দলের জন্য ভাল যাচ্ছে না। একাধিক স্থানে তৃণমূল গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের মাঝে দল যে ক্রমশ কোণঠাসা হয়ে পরছে, তা বলা বাহুল্য। আর এর মাঝে একটি পোস্টকে কেন্দ্র করে কুণাল ঘোষ এবং পার্থ চট্টোপাধ্যায়-র মধ্যে ফাটল দেখা দিল। কুণাল ঘোষ এই পোস্টের পাল্টা একটি পোস্ট শেয়ার করেন। ফেসবুক এবং টুইটারে মনমোহন সিংহের ছবি শেয়ার করে তিনি লেখেন, “2012, MP শপথের ছবিতে তিনি। 2018, অবসরের মুহূর্তেও তিনি। পরমশ্রদ্ধেয় ডঃ মনমোহন সিংহ। যে বা যাঁরা তাঁর মৃত্যুসংবাদ ছড়ালেন, আগ বাড়িয়ে শোক জানালেন, সেই দায়িত্বজ্ঞানহীনদের ধিক্কার জানাই। দুঃখপ্রকাশ করুন তাঁরা। ডঃ সিং ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন।”

এই ঘটনাকে ঘিরে ফের অস্বস্তিতে পড়লেন প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী। বর্তমানে এসএসসি শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মী নিয়োগে বেনিয়মকে ঘিরে তোলপাড় রাজ্য। যা অভিযোগ উঠছে তাঁর বেশিরভাগই তাঁরই আমলে। কলকাতা হাইকোর্টের নজরে এখন তাঁরই আপ্ত সহায়ক এবং অফিসার অন স্পেশাল ডিউটি। এই দুর্নীতির মামলায় অভিযোগের আঙুল তাঁরই মন্ত্রিত্ব থাকা কালীন জমনা। এরইমধ্যে কুনাল ঘোষ কেন হঠাৎ ধিক্কার জানিয়ে এই ট্যুইট করতে গেলেন তাই নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। কুনাল ঘোষ সচরাচর নিজের দলীয় কর্মী ও নেতাদের রক্ষা করার উদ্দেশ্য নিয়েই কাজ করে থাকেন। সেই কুনাল ঘোষ হঠাৎই এই ট্যুইট করে ফের বিতর্ক উস্কে দিলেন কেন? তাহলে কী এসএসসি মামলায় দলের অন্দরে কোণঠাসা পার্থ চট্টোপাধ্যায়?

- Advertisement -
Latest news
Related news