Monday, April 15, 2024

Partha Chattopadhyay ED:পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের স্ত্রীর নামাঙ্কিত পিংলার ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে ইডি! প্রিন্সিপাল সহ ৩ জনকে সাড়ে ৫ ঘন্টার জেরা

- Advertisement -spot_imgspot_img

শশাঙ্ক প্রধান: বুধবার হাইকোর্টে নিজের জামিন চেয়ে ব্যাপক কান্নাকাটি করেছেন রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় যদিও চিঁড়ে ভেজেনি তাতে। আদালত তাঁকে ফের ১৪ দিনের জেল হেফাজতে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন। আর ওই বুধবারই কলকাতা থেকে প্রায় ১০০ কিলোমিটার দূরে পশ্চিম মেদিনীপুরের পিংলা থানা এলাকায় পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের স্ত্রী প্রয়াতা বাবলি চট্টোপাধ্যায়ের নামাঙ্কিত স্কুলে দ্বিতীয় বার হানা দিল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের আধিকারিকরা। জানা গেছে এদিন অন্তত: সাড়ে ৫ ঘন্টা জেরা করা হয়েছে ওই স্কুলের প্রিন্সপাল সহ পার্থের দুই আত্মীয়কে যাঁরা সম্পর্কে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের জামাতার মামা ও মামীমা হন।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

এদিন দুপুর সাড়ে তিনটে নাগাদ পিংলার খিরিন্দা মৌজায় অবস্থিত বি সি এম ইন্টারন্যাশনাল মেমোরিয়াল স্কুলে এসে পৌঁছান কেন্দ্রীয় এজেন্সি এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের তদন্তকারী আধিকারিকরা। অগ্রিম জানানো থাকায় ওই স্কুলে পৌনে চারটা নাগাদ পৌঁছে যান পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের জামাই কল্যাণময় ভট্টাচার্যের মামা কৃষ্ণ চন্দ্র অধিকারী ও তাঁর স্ত্রী রিনা অধিকারী। প্রায় একই সঙ্গে পৌঁছে যান স্কুলের প্রিন্সিপাল দেবযানী মিত্রও। তারপরই শুরু হয় জিজ্ঞাসাবাদ। রাত প্রায় ৯ টা নাগাদ স্কুল প্রাঙ্গন ছেড়ে বেরিয়ে যেতে দেখা যায় ইডির আধিকারিকদের। যদিও ঠিক কী নিয়ে এই জেরা সে বিষয়ে সংবাদমাধ্যমের সামনে মুখ খোলেননি ইডির আধিকারিকরা। অন্যদিকে নীরবতা পালন করেছেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের জামাইয়ের ভাগ্নের মামা, মামীমা ও স্কুলের প্রিন্সিপাল। তবে সূত্র মারফত জানা গেছে স্কুলের জন্য এই জমি কেনা ও স্কুল নির্মাণকে ঘিরে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের জামাই কল্যাণময় ভট্টাচার্য যে ১০০ কোটি টাকারও ব্যয় করেছেন বলে ইডি আধিকারিকদের প্রাথমিক অনুমান সেই টাকার উৎস খুঁজতেই ইডির আধিকারিকদের এই দ্বিতীয় অভিযান।

উল্লেখ্য পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বান্ধবী অর্পিতা মুখার্জীর ফ্ল্যাট থেকে প্রায় ৫০ কোটি টাকারও বেশি নগদ ও গহনা ইত্যাদি উদ্ধার হওয়া এবং ওই দুজনের গ্রেফতার হওয়ার পরই নজরে আসে পশ্চিম মেদিনীপুরের অজ পাড়াগাঁয়ে অবস্থিত বিদেশী মডেলের ধাঁচে গড়া পার্থ চট্টোপাধ্যায় স্ত্রী নামাঙ্কিত এই স্কুলের। প্রথম সেই খবর প্রকাশিত হয় আমাদের এই কেজিপি বাংলা নিউজ পোর্টালে। দুদিন পরেই জুলাই মাসে ইডির আধিকারিকরা হানা দেয় এখানে। জানা গেছে পার্থ চট্টোপাধ্যায় শিল্প মন্ত্রী থাকা কালীন শিল্প হওয়ার নাম করেই চাষীদের কাছ থেকে ওই জমি কেনা হয়। সেই লেনদেনে নগদ অর্থ ব্যবহার করা হয় বলেও দাবি উঠেছে। আর এই জমি লেন দেন সহ স্কুল নির্মাণের দেখভাল করেছেন কৃষ্ণ চন্দ্র অধিকারী। সেই স্কুলের জমি সংক্রান্ত বিষয় এবং স্কুলের মালিকানা নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় বলে সূত্রের খবর।

- Advertisement -
Latest news
Related news