Monday, May 20, 2024

Kharagpur Midnapore: মাঝ মাঘেই অকাল বসন্ত! জারি হল ভারী বৃষ্টির হলুদ সতর্কতা, রাতেই বৃষ্টি হতে পারে খড়গপুর মেদিনীপুর ও ঝাড়গ্রামে , দক্ষিণবঙ্গ বৃষ্টি ভেজা সরস্বতী বন্দনা

According to the Meteorological Department, the relative humidity will be much higher as a large amount of water vapor enters the state from the Bay of Bengal. It will start raining in Kharagpur and Medinipur from Thursday night. Jhargram may also get wet in light to moderate scattered rains on Thursday. Chance of heavy rain with thunderstorms on Friday and Saturday across the state. Yellow warning has also been issued. This time Saraswati Puja will be soaked in rain. The weather may improve after Saturday evening.

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: যে বসন্ত আসার কথা ফাল্গুনের প্রথমে তা চলে এল মাঝ মাঘেই। গরম দখিনা বাতাস আর অস্বাভাবিক উষ্ণতায় উচাটন মন। আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছেন, যে অনুমান তাঁরা করেছিলেন সেই ভিলেন পশ্চিমী ঝঞ্ঝা যা কিনা পূর্ব ভারতের দিকে এগোচ্ছিল সেটি অবশেষে এসে পৌঁছে গেছে।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে
সকাল ৬.৩০। নারায়নগড়ের টাকলার ছবি: দীপক মাইতির তোলা

আর তারই জেরে আজ সকাল থেকেই খড়গপুর, মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম সহ গোটা দক্ষিণবঙ্গ জুড়ে জমতে শুরু করেছে বাদল মেঘ। মঙ্গলবার অবধি যে মেঘকে দেখা গিয়েছিল হালকা সাদা, বৃহস্পতিবার তার রঙ কালচে আর ভারী, যার অর্থ মাঝারি অথবা ভারী বৃষ্টি। আবহাওয়া দপ্তর সেই কারণে জারি করেছে হলুদ সতর্কতা।

বুধবার থেকেই খড়গপুর ও মেদিনীপুর এবং ঝাড়গ্রাম ও তার আশেপাশের অঞ্চলে আকাশে মেঘের আনাগোনা চোখে পড়েছিল তারই সঙ্গে ছিল গাঢ় কুয়াশা। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সেই মেঘ আরও ঘন হয়েছে, মাঝে রোদ উঠলেও তেমন তেজ ছিলনা রোদের। বিকাল ৪টার পর ফের আকাশের দখল নিয়েছে মেঘ। ওদিকে খড়গপুর মেদিনীপুর এবং ঝাড়গ্রামের গ্রামগুলিতে ছিল ভারী কুয়াশার দাপট। সকাল ১০টা অবধি সেই কুয়াশার ঘোমটা ছিঁড়ে বেরুতে পারেনি গ্রামগুলি। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা থেকে সেই গ্রামাঞ্চলেও মেঘের দল হানা দিয়েছে। ডেবরা, সবং, পিংলা, নারায়নগড়, দাঁতন, কেশিয়াড়ীর গ্রামগুলোতে বৃহস্পতিবার ব্যাপক কুয়াশা নজরে এসেছে।

আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, বঙ্গোপসাগর থেকে প্রচুর পরিমানে জলীয় বাষ্প রাজ্যে ঢোকায় বেশ অনেকটাই বেশি থাকবে আপেক্ষিক আদ্রতার পরিমাণ। বৃহস্পতিবার রাত থেকেই রাজ্যে শুরু হবে বৃষ্টি। বৃহস্পতিবার হালকা থেকে মাঝারি বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিতে ভিজতে পারে উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলি। আর শুক্র ও শনিবার বজ্র-বিদ্যুৎ সহ ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা গোটা রাজ্য জুড়ে। জারি হয়েছে হলুদ সতর্কতাও। তবে শনিবার সন্ধ্যার পর থেকে উন্নতি হতে পারে আবহাওয়ার।

দেখুন কবে কোথায় বৃষ্টি:                                  বৃহস্পতিবার বৃষ্টি হতে পারে: বজ্র-বিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি শুরু হতে পারে দক্ষিনবঙ্গের জেলাগুলিতে। পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম মেদিনীপুর, বীরভূম, , মুর্শিদাবাদ, পূর্ব বর্ধমান, পশ্চিম বর্ধমানে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়াও উত্তরবঙ্গের দার্জিলিং, কালিম্পং, জলপাইগুড়ি, কোচবিহার এবং আলিপুরদুয়ারে বজ্র-বিদ্যুৎ সহ মাঝারি থেকে হালকা বৃষ্টি হতে পারে।                                    শুক্রবার বৃষ্টি হতে পারে: দক্ষিণবঙ্গে বাড়বে বৃষ্টির পরিমাণ। আগামীকাল উত্তর ২৪ পরগণা, দক্ষিণ ২৪ পরগণা, হাওড়া , হুগলি, কলকাতা, পূর্ব মেদিনীপুর, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, বীরভূম, , মুর্শিদাবাদ, পূর্ব বর্ধমান, পশ্চিম বর্ধমান , ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম মেদিনীপুর, নদীয়া বৃষ্টি হবে। বাঁকুড়া, বীরভূম, , মুর্শিদাবাদ, পূর্ব বর্ধমান, পশ্চিম বর্ধমান নদিয়া জেলায় জারি হয়েছে অতি ভারী বৃষ্টির সতর্কতা।

এছাড়াও উত্তরবঙ্গের দার্জিলিং এবং কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, মালদা, ও দুই দিনাজপুর জেলায় ভারী বৃষ্টির সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া দপ্তর। ৭০-১১০ সেমি বৃষ্টিপাতের সতর্কতা রয়েছে এই জেলাগুলিতে। জারি হলুদ সতর্কতা। একই সঙ্গে দার্জিলিং এবং কালিম্পং জেলায় ধসের সম্ভাবনাও থাকছে বলে সতর্ক করেছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। ৫ তারিখও বৃষ্টিপাত হতে পারে জেলাগুলিতে, তবে ৫তারিখের জন্য এখনও অবধি  সতর্কবার্তা নেই কোনো। সব মিলিয়ে সরস্বতী পূজা এবার হতে চলেছে বৃষ্টিময়।

- Advertisement -
Latest news
Related news