Wednesday, May 22, 2024

INTTUC: গ্রেফতারের পর বহিষ্কৃত তমলুক আইএনটিটিইউসির জেলা সভাপতি ! হলদিয়ার সংগঠনকে কড়া বার্তা তৃনমূল কংগ্রেসের

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা : ক্ষমতার নামে চরম লুটের রাজত্ব কায়েম হয়েছে পূর্ব মেদিনীপুরের হলদিয়া শিল্পাঞ্চলে। তোলা দিতে দিতে নাভিশ্বাস উঠেছে কলকারখানা কর্তৃপক্ষর। যদিও তাতেও রেহাই নেই বিভিন্ন জায়গায় নিয়মিত কৃত্তিম শ্রমিক অসন্তোষ তৈরি করে কারখানা গুলোকে ত্রস্ত করে রাখা যেন দস্তুর হয়ে দাঁড়িয়েছে বন্দর শহরে।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে
বহিষ্কৃত জেলা সভাপতি

একের পর এক কারখানায় উৎপাদন ব্যাহত হচ্ছে। আর এই সমস্ত কিছুর মুলেই যে শাসকদলের নেতারাই রয়েছেন এমন অভিযোগ করে আসছিলেন বিভিন্ন কারখানা কর্তৃপক্ষ। এবার তাকেই মান্যতা দিল তৃনমুল কংগ্রেস। বুধবার সরাসরি বহিস্কার করা হল খোদ আইএনটিটিইউসির (INTTUC) জেলা সভাপতিকে।

মঙ্গলবারই হলদিয়ার এক্সাইড (Haldia Excide Company ) কারখানায় বিক্ষোভের নামে বিশৃঙ্খলা তৈরি করে উৎপাদন বন্ধ করে দেওয়ার অভিযোগে তমলুক সাংগঠনিক জেলা আইএনটিটিইউসি-র সভাপতি তাপস মাইতি, হলদিয়ার সাংগঠনিক পর্যবেক্ষক সঞ্জয় ব্যানার্জি এবং করখানার দুই ছাঁটাই শ্রমিক সৌমেন বাগ ও শেখ মঈদুলকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। রাজ্য তৃনমূল কংগ্রেসের সবুজ সংকেত পাওয়ার পরই কারখানা কর্তৃপক্ষের অভিযোগের ভিত্তিতে ওই দুই নেতা সহ ৪ জনকে রাতেই বাড়ি থেকে তুলে এনেছিল দুর্গাচক থানার পুলিশ। পরে তাঁদের গ্রেফতার করা হয়। মঙ্গলবার রাতেই হলদিয়ায় পৌঁছে যান শ্রমমন্ত্রী মলয় ঘটক এবং আইএনটিটিইউসির রাজ্য সভাপতি ঋতব্রত ব্যানার্জী। এরপরই বুধবার তাঁরা ঘোষণা করেন জেলা সভাপতির বহিস্কারের।

বুধবার সকাল সাড়ে ১০ টা নাগাদ হলদিয়া ভবনে শিল্পসংস্থাগুলিকে নিয়ে বৈঠকে বসেন মন্ত্রী মলয় ঘটক এবং আইএনটিটিইউসি-র রাজ্য সভাপতি ঋতব্রত ব্যানার্জি। তারপরই সাংবাদিক সম্মেলন করে জেলা সভাপতি ও পর্যবেক্ষকের বহিস্কারের কথা ঘোষনা করা হয়। পাশাপাশি ওই দুজনকে দল থেকেও বহিস্কারের কথা ঘোষণা করা হয়েছে। ঋতব্রত জানিয়েছেন, ‘আগামীদিনে কারখানার গেটে কোনও ধরনের বিশৃঙ্খলা কিংবা অনৈতিক কাজকর্ম বরদাস্ত করা হবে না। হলে তার বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করবে দল। এ জন্য শিল্পসংস্থাগুলিকে হেল্প লাইন নাম্বারও দেওয়া হয়েছে।’ ঋতব্রত আরও জানান, ‘শিল্পসংস্থা গুলির পক্ষ থেকে গুচ্ছগুচ্ছ অভিযোগ এসেছে এঁদের বিরুদ্ধে। শ্রমিক সংগঠন করার নামে এঁরা অনৈতিক কাজ করছিলেন। যা আইএনটিটিইউসির করার কথা নয়।’

এদিনের ওই বৈঠকে অভিযুক্ত নেতাদের সাসপেন্ড করার পাশাপাশি তমলুক সাংগঠনিক জেলা আইএনটিটিইউসি-র সভাপতি পদে নিযুক্ত করা হয়েছে শিবনাথ সরকারকে। আর পুরোপুরি অবলুপ্তি ঘটানো হয়েছে হলদিয়ার সংগঠনিক পর্যবেক্ষক পদটিও। অপর দিকে ধৃত তাপস মাইতি, সঞ্জয় ব্যানার্জি সহ ৪ জনকে হলদিয়া আদালতে তোলা হলে বিচারক তাঁদের অন্তর্বর্তী জামিন মঞ্জুর করেছেন।

- Advertisement -
Latest news
Related news