Saturday, April 20, 2024

Midnapore Chrimast Picnic: পশ্চিম মেদিনীপুরে মাতালদের দখলে বড়দিন! পিকনিক পার্টির মারে আহত ৭ পুলিশ কর্মী, ভাঙচুর পুলিশের গাড়ি

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: সরকারি উদ্যোগে মদের বাজার রমরমা বাংলায়। যত মদ তত রাজস্ব! প্রতিটা উৎসব অনুষ্ঠান আর পুজা পার্বনে মদ থেকে রেকর্ড আয় সরকারের। তাই বড়দিনটাই বা বাদ যায় কেন? সকাল থেকে নয় গতকাল রাত থেকেই চলেছে মদের ঢালাও বিক্রি। রাত ফুরালেই পিকনিক তাই আগে ভাগেই মদের বোতল জোগাড় করা চাই। মদ ছাড়া পিকনিক জমে নাকি? কোথাও প্রকাশ্যে আর কোথাও বা গোপনে বসেছে মদের আসর। সেই মদের আসর থেকে অপর পিকনিক পার্টি বিশেষ করে মেয়েদের দেখে চলেছে টোন, টিটকারি আর অশালীন মন্তব্য। সেরকমই এক পিকনিকে আসা মদ পার্টিকে সতর্ক করতে গিয়ে মাতাল যুবকদের হাতে বেধড়ক মার খেলেন ৭ জন পুলিশকর্মী। শুধু তাই নয় মাতালের দল ভাঙচুর করেছে পুলিশের গাড়িটিও। অভব্যতার প্রতিবাদ করতে গিয়ে মাতালদের হাতে আক্রান্ত হয়েছেন স্থানীয় জনতাও।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

এদিনের সবচেয়ে বড় ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার চন্দ্রকোনা থানার অন্তর্গত বড়মা কালী মন্দির লাগোয়া শীলাবতী নদীর পাড়ে। জানা গেছে জায়গাটি ক্ষীরপাই পুলিশ ফাঁড়ির নিয়ন্ত্রনাধীন। স্থানীয়দের দাবী নদী পাড়ের বেশ কিছু এলাকা জুড়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পিকনিক করছিল বিভিন্ন পিকনিক পার্টি। কিছু স্থানীয় পরিবারও মিলিত ভাবে পিকনিকের আয়োজন করেন যেখানে পরিবারের গৃহবধূ ও মহিলা সদস্যারা ছিলেন। পুলিশ সূত্রে জানা যায় ওইখানে ঘাটাল থানা এলাকার মনসুকা এলাকার বেশ কিছু যুবকের একটি দল পিকনিক করার পাশাপাশি মদের আসরও বসায়। সেখান থেকেই মেয়েদের প্রতি নানান অঙ্গভঙ্গি, কটুক্তি ইত্যাদি করা হয়। মহিলাদের সাথে থাকা পুরুষ সদস্যরা তার প্রতিবাদ করতে গেলে সংঘর্ষ বেধে যায়। ব্যাপক মারধর খান মহিলাদের সঙ্গে থাকা কয়েকজন ব্যাক্তি।

এই সময় টহলরত ক্ষীরপাই পুলিশ ফাঁড়ির ভ্যানের পুলিশকর্মীরা পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে পৌঁছালে মদ্যপ যুবকদের হাতে আক্রান্ত হন তাঁরাও। আহত এক পুলিশকর্মী সুরজিৎ মজুমদার জানান, ঘটনার জন্য প্রস্তুত ছিলামনা আমরা। পিকনিক পার্টির সদস্যরা যে রান্নার জন্য ব্যবহৃত খুন্তি, কাঠ, বাঁশ ইত্যাদি দিয়ে আক্রমন করতে পারে ভাবতেই পারিনি। তাদের আচমকা আক্রমনে মার খেয়ে যান অনেক পুলিশ কর্মীরাও। পুলিশের ভ্যান ভাঙচুর করে ওই মদ্যপ যুবকরা, ঘটনাস্থলে খবর পেয়ে চন্দ্রকোনা থানা ও ক্ষীরপাই ফাঁড়ির বিশাল পুলিশ বাহিনী এসে পরিস্থিতি সামাল দেয়। ঘটনায় ৭ জন পুলিশ ও ৩ জন স্থানীয় ব্যাক্তি আহত হয় বলে খবর। পুলিশ কর্মী ক্ষীরপাই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। অভিযুক্তরা পালিয়ে যায় পুলিশ তাদের খোঁজে রেইড শুরু করেছে।

এদিন কাঁসাই নদীর পাড়, গোপগড় ইকোপার্ক সহ বিভিন্ন জায়গাতেই বহু পিকনিক পার্টিকেই মদ খেয়ে হইহুল্লোড় করতে দেখা যায়। বেশ কিছু জায়গায় পুলিশ এবং পার্ক কর্মীদের সঙ্গে বচসা বেধেছে ওই মদ্যপদের। কয়েকটি জায়গায় প্রকাশ্যে মদ্যপানের অভিযোগে পিকনিক বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। সবং থানা এলাকায় পিকনিক করতে গিয়ে জলে ডুবে মৃত্যু হয়েছে এক যুবকের।

- Advertisement -
Latest news
Related news