Monday, May 20, 2024

Midnapore: পশ্চিম মেদিনীপুরের যুবদের সামরিক, আধাসামরিক চাকরি পেতে প্রশিক্ষণ দেবে প্রাক্তন সমরকর্মীদের সংগঠন

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: এক অভূতপূর্ব উদ্যোগ নিতে চলেছেন প্রাক্তন সামরিক কর্মীদের সংগঠন পশ্চিমবঙ্গ এক্স আর্মি ওয়েল ফেয়ার আ্যশোসিয়েশন। নিজেদের গোষ্ঠী গত স্বার্থ রক্ষার পাশাপাশি এবার সমাজের বৃহত্তর স্বার্থ রক্ষায় সামরিক বা আধা সামরিক বাহিনীতে যুক্ত হতে চান এমন বেকার যুবক যুবতীদের প্রশিক্ষণ দেওয়ার ব্যবস্থা করতে চলেছেন তাঁরা। বুধবার দেশের ৭৩ তম প্রজাতন্ত্র দিবস উপলক্ষ্যে পশ্চিম মেদিনীপুরের ডেবরা প্রেক্ষাগৃহের একটি অনুষ্ঠানে এমনই ঘোষণা করলেন সংগঠনের সম্পাদক শিবু দাস। শ্রী দাস বলেন, আমাদের সংগঠন সিদ্ধান্ত নিয়েছে, সামরিক অথবা অসামরিক বাহিনীতে যোগ দিতে ইচ্ছুক এমন ছেলে মেয়েদের আমরা প্রশিক্ষণ দেব যাতে তারা সহজেই ওই সব বাহিনীর পরীক্ষায় উর্ত্তীন হতে পারেন।” শ্রী দাস আরও বলেছেন, ‘আমাদেরই এক সংগঠনের সদস্য প্রাক্তন সমরকর্মী ব্যক্তিগত উদ্যোগে এই কাজ শুরু করেছেন নারায়নগড় এলাকায়। আমরা তাঁরও পরামর্শ ও সহযোগিতা নিচ্ছি যাতে আরও বড় আকারে এমন প্রশিক্ষণ শিবির গড়ে তোলা যায়।”

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

উল্লেখ্য পশ্চিমবঙ্গ এক্স আর্মি ওয়েলফেয়ারের সদর দপ্তর ডেবরাতেই। সারা বছর নানা ধরনের সামাজিক কল্যাণ মূলক কাজে যুক্ত থাকে সংগঠনটি। করোনাকালে এই সংগঠনের সদস্যরা টানা ২মাস ডেবরা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে কর্তৃপক্ষকে সাহায্য করে গেছেন গন টিকাকরন সুশৃঙ্খল ভাবে সম্পাদন করার জন্য। সংগঠনের সদস্যরা স্বেচ্ছাশ্রম দিয়েছেন। এলাকার দুঃস্থ মেধাবী সন্তানদের জন্য পাঠ্যসামগ্রী প্রদানের পাশাপাশি এবার তাঁদের লক্ষ্য বেকার যুবকযুবতীদের কর্মসংস্থানের পথে এগিয়ে যেতে সাহায্য করা। এবার সেই কাজের প্রস্তুতি নিচ্ছেন তাঁরা।

সংগঠনের এক সদস্য বলেন, ‘বর্তমান সরকারি চাকরি সঙ্কোচনের যুগেও সেনাবাহিনী কিংবা আধা সামরিক বাহিনীতে কাজের সুযোগ রয়েছে প্রচুর। বছরের বিভিন্ন সময়ে সামরিক, বায়ু কিংবা নৌবাহিনীতে নিয়ম করে নিয়োগ হয়। পাশাপাশি রয়েছে সিআরপিএফ, বিএসএফ, আইটিবিটি, সিআইএসএফ সহ বেশ কয়েকটি কেন্দ্রীয় পুলিশ বাহিনী যেখানে সারা বছর হাজার হাজার যুবক যুবতী নিয়োগ করা হয়। কম যোগ্যতা থেকে উচ্চ শিক্ষিত সবার জন্যই এখানে সুযোগ রয়েছে। আমরা যুবক যুবতীদের উদ্বুদ্ধ করতে চাই এই চাকরিতে যোগ দেওয়ার জন্য। তাঁরা কখন কোথায় কীভাবে আবেদন করবেন, তাঁদের কী ধরনের মেধাগত ও শারীরিক পরীক্ষার সম্মুখীন হতে হবে সবটাই জানাবো আমরা। পাশাপাশি ক্যাম্প করে তাঁদের ফিটনেস তৈরি করে দেব। এরজন্য একটি নির্দিষ্ট সময় অবধি তাঁদের আমাদের ক্যাম্পে থাকতে হবে।’

শিবু দাস বলেছেন, ‘ আমাদের অভিজ্ঞতাতো আছেই পাশাপাশি আমরা প্রশাসনিক ও পুলিশের সাহায্যও নেব এই কাজের জন্য।’ উল্লেখ্য সামরিক বা আধাসামিরক বাহিনীতে প্রশিক্ষণ দেওয়ার বিষয়টি এই এলাকায় একটি ধারার মধ্যে রয়েছে সবং এলাকায় কয়েকটি সংগঠন এই ধরনের শিবির করে থাকে। যদিও এরজন্য তাঁরা কাজে নিযুক্ত হবার পর যুবকদের কাছ থেকে একটি অঙ্কের চুক্তি করে থাকে। ধারার সঙ্গে প্রাক্তন সেনাবাহিনী সদস্যদের এই উদ্যোগ এই এলাকায় একটি নতুন উদ্যম যোগ করবে বলেই মনে হচ্ছে। এদিন সংগঠনের পক্ষ থেকে ডেবরার বিধায়ক তথা রাজ্যের কারিগরী উন্নয়ন মন্ত্রী হুমায়ুন কবীর ও ডেবরা থানার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ আধিকারিক প্রণব পাত্রকে সম্বর্ধিত করা হয়।

- Advertisement -
Latest news
Related news