Tuesday, April 16, 2024

পূর্ব মেদিনীপুরে ফের গ্রাম কমিটির ফতোয়া! নিমন্ত্রণ রক্ষা করতে না যাওয়ায় নষ্ট আড়াই হাজার মানুষের খাবার, গ্রেফতার ৮

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: পূর্ব মেদিনীপুরের মহিষাদলের একটি গ্রাম কমিটির ফতোয়া ছিল কমিটির বিনা অনুমতিতে কোনও জমি, ঘরবাড়ি বেচাকেনা যাবেনা। সেই নিয়ে রাজ্য জুড়ে হৈচৈ পড়ে যায়। এবার সেই জেলারই পটাশপুর। পুরো খাপ পঞ্চায়েতের স্টাইলে ফতোয়া জারি করে বন্ধ করে দেওয়া হল হাজার হাজার মানুষের নিমন্ত্রণ রক্ষা। কমিটির ধার্য করা জরিমানার ভয়ে এক পরিবারের আয়োজন করা অন্ন মহোৎসবে যেতে পারলেননা গ্রামবাসীরা। নষ্ট হল প্রায় আড়াই হাজার মানুষের খাবার! ঘটনাস্থল পটাশপুর ২ ব্লকের শ্রীরামপুর গ্রাম-পঞ্চায়েতের খড়িকা পাটনা গ্রাম। ঘটনা নিয়ে তীব্র অসন্তোষ তৈরি হওয়ায় ৮জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পলাতক ২জন।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, খড়িকা পাটনা গ্রামের বিশাই পরিবারের বাড়ির অশীতিপর বৃদ্ধা গৃহকর্ত্রীর ইচ্ছা পূরণের জন্য একটি অন্নকূট বা অন্ন- মহোৎসবের আয়োজন করেছিল। গ্রামেরই মন্দিরে এই জন্য ব্যবস্থা করা হয় প্রায় আড়াই হাজার মানুষের অন্নভোগের ব্যবস্থা। নিজ গ্রাম ছাড়াও নিমন্ত্রিত ছিলেন আশপাশের মানুষজনও। কিন্তু এই ব্যবস্থাপনায় গ্রাম কমিটির অনুমতি নেওয়া হয়নি এই অজুহাত দেখিয়ে কমিটির পক্ষে ফতোয়া জারি করা হয় যে ব্যক্তি বা পরিবার ওই অন্ন মহোৎসবে যাবেন তাঁদের ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হবে। ফলে গ্রামবাসীরা ওই মহোৎসবে যাওয়ার সাহস দেখাননি।

বুধবার দুপুর গড়িয়ে গেলেও কেউ আসছেনা দেখে মাথায় হাত পড়ে বিশাই পরিবারের। ক্ষুব্ধ পরিবার গ্রামের মন্দিরের সামনে ওই নষ্ট হওয়া ভাত-তরকারি নিয়ে ধর্নায় বসেন স্থানীয় রতন বিশাই ও তপন বিশাইয়ের বাড়ির লোকজন। এদিকে এই ঘটনায় অত্যন্ত মনোবেদনায় গ্রাম ছেড়ে কোথাও চলে যান সেই বৃদ্ধা। তাই নিয়ে সন্ধেয় গ্রাম কমিটির অফিসে গিয়ে চড়াও হন বিশাই বাড়ির লোকজন। গ্রামের বাসিন্দারাও শামিল হন তাতে। খবর পেয়ে এলাকায় যান ব্লকের বিডিও শঙ্কু বিশ্বাস ও পটাশপুর থানার ওসি দীপক চক্রবর্তী। বিডিও বলেন, ‘ গ্রামবাসীদের অভিযোগ জানাতে বলা হয়েছে এ ব্যাপারে। অভিযোগ পেলেই গ্রাম কিমিটির লোকজনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এই ধরনের ঘটনা কোনওভাবেই বরদাস্ত করা হবে না।’

তপন বিশাই বলেন, ‘ আমার মা এই মহোৎসবের আয়োজন করেছিলেন। গ্রামবাসী ও আত্মীয়স্বজন মিলে ২২০০ মানুষকে খাওয়ানোর ব্যবস্থা করা হয়েছিল। কিন্তু গ্রাম কমিটির নির্দেশে গ্রামবাসীরা আমাদের বাড়ির অনুষ্ঠান বয়কট করেছেন। এতে অনেক খাবার নষ্ট হয়েছে। এই ঘটনার পর থেকে আমার মা বাড়ি ছেড়ে চলে গিয়েছেন। তাঁকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।’ এরপরই থানায় অভিযোগ জানান বিশাই পরিবার। পুলিশ গ্রাম কমিটির ৮ জন সদস্যকে গ্রেফতার করে। পালিয়ে যায় কমিটির ২ সদস্য। তাঁদেরও খোঁজ করছে পুলিশ। ঘটনায় ক্ষুব্ধ
স্থানীয় বাসিন্দারা গ্রাম কমিটিকে ভেঙে দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন।

- Advertisement -
Latest news
Related news