Friday, April 19, 2024

Kharagpur Crime: ধনতেরাশের মুখে খড়গপুর গোলবাজারে ডাকাতি! জোরালো আলো ফেলে ঝলসে দেওয়া হল সিসিটিভি ফুটেজ

A group of 6 robbers attacked the shop of Naveen Agarwal, a large wholesaler in Golbazar, Kharagpur at around 9:20 pm on Saturday. Navin Agarwal said, "Two of those six people had guns in their hands. The group of robbers held a gun to my head and looted 1 lakh cash, a laptop, 2 mobile phones and five gold rings.' Aggarwal also said that the gang of robbers also slapped him and the employee. Although Agarwal's shop has two CCTV cameras, the camera inside the shop has been useless for some time. The camera at the entrance of the store is in good condition. As a result, when the robbers entered the store, the picture was recorded. But after the incident, when the police went to see the CCTV camera records, it was found that even though the camera was on, the light was reflecting in the whole area in such a way that nothing could be seen. The entrance of the shop is fully lit by dark light sheets. Naveen said, "I think there was a strong light shining on the camera so that nothing was visible due to the intense reflection." However, the police did not say anything about the matter.

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: সিসিটিভি ক্যামেরার ওপর জোরালো আলো ফেললে তার প্রতিফলনে ক্যামেরার সামনে থাকা যাবতীয় বস্তু বা ব্যক্তির ছবি ঝলসে যেতে পারে? অন্ততঃ এমনটাই দাবি করা হচ্ছে খড়গপুর গোলবাজারের ডাকাতি হওয়া একটি পাইকারি দোকানের পক্ষ থেকে। সামনেই ধনতেরাশ। তারপরই কালীপুজো ফলে বাজারে কেনাকাটা বাড়ছে।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে
Nothing is to be see

বিশেষ করে পাইকারি দোকানদারের হাতে এই সময় নগদ টাকার পরিমাণ বাড়ছে। তারই সুযোগ নিয়ে শনিবার রাত ন’টা কুড়ি নাগাদ গোলবাজারের বড় হোলসেলার নবীন আগরওয়ালের দোকানে হামলা চালায় ৬ ডাকাতের একটি দল। নবীন আগরওয়াল জানিয়েছেন, ‘ ওই ছ’জনের মধ্যে দু’জনের হাতে বন্দুক ছিল। আমার আর কর্মচারীর মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে নগদ ১লক্ষ টাকা ক্যাশ, একটা ল্যাপটপ, ২টা মোবাইল ফোন আর পাঁচটা সোনার আংটি নিয়ে চম্পট দেয় ওই ডাকাতের দল।’ আগরওয়াল আরও জানিয়েছেন, ডাকাতের দলটি তাঁকে এবং কর্মচারীকে চড় থাপ্পড়ও মারে।

আগরওয়ালের দোকানে দুটি সিসিটিভি ক্যামেরা থাকলেও দোকানের ভেতরের ক্যামেরাটি কিছুদিন হল অকেজো। দোকানে প্রবেশের মুখে যে ক্যামেরাটি রয়েছে সেই ক্যামেরা ভালো অবস্থাতেই আছে। ফলে দোকানে যখন ডাকাত দল প্রবেশ করেছিল তার ছবি রেকর্ড হওয়ার কথা। কিন্তু ঘটনার পরে এসে পুলিশ যখন সিসিটিভি ক্যামেরার রেকর্ড দেখতে যায় তখন দেখা যায় ক্যামেরা চালু থাকলেও পুরো এলাকাটায় এমন ভাবে আলো প্রতিফলিত হচ্ছে যে কিছুই দেখা যাচ্ছেনা।

আলোয় ঝলসে যাওয়া ফুটেজ

গাঢ় আলোর চাদরে দোকানের প্রবেশ মুখটা পুরো ঝলসে রয়েছে। নবীন বলেছেন, ” আমার ধারনা ওই ক্যামেরার ওপর কোনও জোরালো আলো ফেলা হয়েছিল যার ফলে তীব্র প্রতিফলনে কিছুই দৃশ্যমান হতে পারেনি।” যদিও বিষয়টা নিয়ে পুলিশের তরফে কিছু বলা হয়নি।
ঘটনার সময় গোলবাজারের ওই লাইনে থাকা সমস্ত দোকানই প্রায় বন্ধ হয়ে গেছিল ফলে নবীনের দোকানে কী হচ্ছে তা কেউ জানতেও পারেনি।

ঘটনার কিছুক্ষনের মধ্যেই ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছায় খড়গপুর মহকুমা পুলিশ আধিকারিক দীপক সরকার এবং খড়গপুর টাউন থানার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ আধিকারিক স্বরূপ মুখার্জী ও অন্যান্য পুলিশ কর্মীরা। সমস্ত কিছু খতিয়ে দেখেন তাঁরা। যদিও এখনো অবধি এই ঘটনায় এখনও অবধি কাউকে সনাক্ত করা যায়নি বলেই জানা গিয়েছে। পুলিশের পক্ষ থেকে বাজারের অন্যান্য সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানা গেছে। এদিকে ধনতেরাশের মুখেই এই ডাকাতির ঘটনায় আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে দোকানদারদের মধ্যে।

- Advertisement -
Latest news
Related news