Saturday, May 25, 2024

[Midnapore Accident] জঙ্গলমহলে ম্লান মকর সংক্রান্তির আনন্দ! বালি গাড়ির ধাক্কায় মৃত কৃষক, পশ্চিম মেদিনীপুরে ক্ষুব্ধ জনতার ভাঙচুর, অবরোধ

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: রাত পোহালেই মকর সংক্রান্তি, জঙ্গল মহলের ঘরে ঘরে শস্যলক্ষীর পূজা আর পিঠেপুলি উৎসব। আর তারই জন্য নিকটবর্তী বাজারে গিয়েছিলেন কৃষক। সবজি ভর্তি বাজার আর রান্নার গ্যাস নিয়ে বাড়ি ফেরার প্রস্তুতিও নিয়েছিলেন কিন্তু আর বাড়ি ফেরা হলনা। ঘাতক লরি গুঁড়িয়ে দিয়ে গেল তাঁর মাথা।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে
ঘাতক লরি

বৃহস্পতিবার এমনই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে গেল পশ্চিম মেদিনীপুরের গড়বেতার রাধানগর বাজারে। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে নিহত ব্যক্তির নাম অরুন সাহা। ৫৩ বছরের ওই ব্যক্তির বাড়ি গড়বেতারই আমলাগোড়াতে। ঘটনার পরই বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠে। ক্ষুব্ধ জনতা ভাঙচুর চালায় লরিটিতে।

জনতার অবরোধে রাস্তা

জানা গেছে ঘটনাটি ঘটেছে বেলা ১১টা নাগাদ রাধানগর সবজি বাজারের মুখে গড়বেতা- আমলাগোড়া রাজ্য সড়কের ওপরেই। অরুন সাহা মকরপূজো ও পৌষ সংক্রান্তি উৎসবের জন্য ফলমূল ও সবজি বাজার করেন তারপর সাইকেলের পেছনে রান্নার গ্যাস বেঁধে বাড়ির দিকে রওনা হয়েছিলেন। ওই সময় একটি বালি ভর্তি ১৪ চাকার লরি ছুঁয়ে যায় তাঁকে। টাল সামলাতে না পেরে পড়ে যান অরুন সাহা। লরির চাকা চলে যায় তাঁর মাথার ওপর দিয়ে। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় অরুন সাহার।

ক্ষুব্ধ জনতার বিক্ষোভ

চোখের সামনেই এই ঘটনা ঘটতে দেখে প্রথমে হতচকিত ও পরে ক্রোধে ফেটে পড়েন বাজারে থাকা উপস্থিত জনতা। ট্রাকটিকে ঘিরে শুরু হয় জনতার ভাঙচুর। ঘটনার কয়েক মিনিটের মধ্যেই চলে আসে গড়বেতা থানার একটি পুলিশ গাড়ি। জনতার ধারণা হয় তোলা তোলার জন্যই লরিটিকে ধরার চেষ্টা করছিল আর তাই ভয়ে লরিটি প্রানপনে ছুটছিল আর তাই এই দুর্ঘটনা। জনতার ক্ষোভ দ্বিগুন হয়ে যায়। পুলিশ গাড়ি ঘিরেও চলে ব্যাপক বিক্ষোভ। অবরোধ বিক্ষোভের জেরে গড়বেতা-আমলাগুড়া সড়ক অবরুদ্ধ হয়ে থাকে ঘন্টার পর ঘন্টা। বেলা ৩ টায় অবরোধ ওঠাতে সক্ষম হয় পুলিশ।

উল্লেখ্য বালি মাফিয়াদের দাপটের জন্য কুখ্যাত গড়বেতা। শাসকদলের কিছু নেতার মদতে শিলাবতী নদী জুড়ে ব্যাপক বালি উত্তোলন হয়ে থাকে এমনই অভিযোগ রয়েছে এলাকায়। পুলিশের উদ্যোগে গোটা জেলার সাথে গড়বেতাতেও ব্যাপক ধরপাকড় ও তল্লাশির পাশাপাশি বেশ কিছুদিন বালি তোলা বন্ধ করে দেওয়া হয়। সম্প্রতি সেই বালি তোলা শুরু হয়েছে। উপস্থিত জনতা অভিযোগ করতে থাকেন বেশ কিছুদিন বালি তোলা বন্ধ থাকার পর ফের শুরু হয়েছে বালি তোলা। আর তার সঙ্গেই বেড়েছে বালি গাড়ির দাপট। জনতা আরও অভিযোগ করেছেন যে দুর্ঘটনার স্থানটিতে ১৪চাকা লরি চলার কথা নয়। মৃত অরুন সাহার ২৭ বছরের ছেলে ও স্ত্রী রয়েছে। ঘটনার পর আমলাগোড়া জুড়ে শোকের ছায়া।

- Advertisement -
Latest news
Related news