Tuesday, June 25, 2024

Kharagpur Chess : খড়গপুর ঘুরে গেলেন গ্র্যান্ড মাস্টার দিব্যেন্দু বড়ুয়া! ৪০ খুদের সঙ্গে খেলে শিখিয়ে গেলেন কিস্তিমাতের কৌশল

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: রবিবার ছুটির সকালে খড়গপুর শহরে একটি সম্বর্ধনা সভায় হাজির হয়ে ৪০জন খুুুুদের খেলোয়াড়ের সাথে দাবা খেলে গেলেন ভারতের অন্যতম সেরা দাবাড়ু দিব্যেন্দু বড়ুয়া। খড়গপুর শহরের পুরাতন বাজারে শীতলা টকিজ প্রেক্ষাগৃহে এই আয়োজনের ব্যবস্থাপনায় ছিল পশ্চিম মেদিনীপুর ডিস্ট্রিক্ট চেজ আ্যসোসিয়েশনের ডেভলপমেন্ট কমিটি।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

ডেভলপমেন্ট কমিটির অন্যতম সদস্য রাজেশ কুমার রায় জানিয়েছেন, দেশের দাবা সংস্থা গুলির সর্বোচ্চ কমিটি হল অল ইন্ডিয়া চেজ ফেডারেশন বা AICF. রাজ্যের দাবা সংস্থা গুলির অনুমোদন প্রয়োজন হয় AICF এর। সম্প্রতি রাজ্যের প্রাক্তন একটি দাবা সংস্থার বদলে এখন AICF অনুমোদন দিয়েছে সারা বাংলা দাবা সংস্থাকে। তারই অধীনে রয়েছে আমাদের পশ্চিম মেদিনীপুর ডিস্ট্রিক্ট চেজ আ্যসোসিয়েশন। এই বিষয়টি অনেকেই জানেননা বা জানলেও অন্য সংস্থাগুলি তাদের বিভ্রান্ত করে। তাই এই বিষয়টি সবার কাছে জানানোর জন্যই গ্র্যান্ড মাস্টারকে আমরা এনেছিলাম। কারন আমাদের কথা কেউ বিশ্বাস করতে নাও পারেন।

পাশাপাশি সদ্যগঠিত ডেভলপমেন্ট কমিটির পক্ষ থেকে সম্বর্ধনা জানানো হয় গ্র্যান্ড মাস্টার কে। গ্র্যান্ড মাস্টারও এদিন বলেন, “স্বীকৃত বা রেকগনাইজ বডি”র সাথে থাকুন, যাতে আগামী দিনে রাজ্য বা জাতীয় স্তরের খেলায় খেলতে কোন অসুবিধা না হয়।’ অর্জুন পুরস্কার প্রাপ্ত বাংলার প্রথম গ্র্যান্ড মাস্টার দিব্যেন্দু বড়ুয়া এদিন জানিয়ে যান, সর্বভারতীয় দাবা সংস্থা সম্প্রতি রাজ্যস্তরে সারা বাংলা দাবা সংস্থাকে স্বীকৃতি দিয়েছে। তাদের স্বীকৃতি প্রাপ্ত জেলার একমাত্র সংস্থা ‘পশ্চিম মেদিনীপুর ডিস্ট্রিক্ট চেজ এসোসিয়েশন’।

গ্র্যান্ড মাস্টার এদিন উপস্থিত দাবাড়ু দের জানিয়ে যান, এই সংস্থার সাথেই থাকুন আপনারা। আপাতত কাজকর্ম করার জন্য এই সংস্থার ৪ জনকে নিয়ে একটি ডেভলপমেন্ট কমিটি তৈরি করেছেন তিনি। সেই কমিটি ঘোষণা করে যান দিব্যেন্দু বড়ুয়া। এরাই আগামীদিনে জেলার কাজকর্ম সামলাবেন বলে ঘোষণা করেন তিনি। এদিন দিবেন্দু বড়ুয়া ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সারা বাংলা দাবা সংস্থার গুরুত্বপূর্ণ সদস্যরা।

- Advertisement -
Latest news
Related news