Monday, June 17, 2024

Hero driver : পশ্চিম মেদিনীপুরে ঝুলন্ত বৈদ্যুতিক তারের সংস্পর্ষে পাট বোঝাই লরিতে আগুন! জ্বলন্ত লরি লোকালয়ের বাইরে নিয়ে ঝিলের মধ্যে গড়িয়ে দিলেন বীর চালক

There is no end to the allegations against lorry drivers. They drive under the influence of alcohol, reckless driving lorries, they are responsible for all the accidents. But the identity of a lorry driver was found whose intelligence and bravery saved a populated area from a major accident. At the risk of his own life, he bravely drove a burning lorry and threw it into a lake outside the locality. The incident took place on Sunday in Pindrui village under Pingla police station in West Midnapore.

- Advertisement -spot_imgspot_img

শশাঙ্ক প্রধান : লরি চালকদের বিরুদ্ধে অভিযোগের শেষ নেই। তাঁরা মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালান, বেপরওয়া লরি চালান, যাবতীয় দুর্ঘটনার জন্য দায়ী তাঁরাই। কিন্তু এমন এক লরি চালকের পরিচয় পাওয়া গেল যাঁর উপস্থিত বুদ্ধি আর সাহসিকতার জন্য বড়সড় দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেল একটি জনবহুল এলাকা।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে
জ্বলন্ত লরি নিয়ে যাচ্ছেন চালক

নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রীতিমতো বীরত্বের সঙ্গে একটি জ্বলন্ত লরিকে চালিয়ে নিয়ে গিয়ে লোকালয়ের বাইরে একটি ঝিলের মধ্যে ফেলে দেন তিনি। রবিবার ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুরের পিংলা থানার অন্তর্গত পিন্ডরুই গ্রামে।

জানা গেছে উত্তর ২৪ পরগনা এলাকার একটি চটকলের জন্য পাট সংগ্ৰহ করতে ওই লরিটি এসেছিল পিন্ডরুই বাজারে। রবিবার দিনভর পাট বোঝাই করার বিকাল সাড়ে ৪টার সময় রওনা দেয় সেটি। গোবর্ধনপুর, হাউর হয়ে হাওড়া মুম্বাই জাতীয় সড়কে ওঠার কথা ছিল লরিটির।

লরি ফেলে দিচ্ছেন ঝিলে

কিন্তু পিন্ডরুই বাজার থেকে ২০০ মিটার দূরে রাস্তার ওপর ঝুলে থাকা ১১ হাজার কিলোভোল্ট সম্পন্ন উচ্চক্ষমতার বিদ্যুৎ পরিবাহী তারের সংস্পর্ষে এসে আগুন লেগে যায় লরিতে বোঝাই পাটে। শুকনো পাট হওয়ার সংস্পর্ষে দাউ দাউ করে জ্বলে উঠতে থাকে।

ঘটনাটি দেখতে পেয়েই চিৎকার করতে থাকেন রাস্তার দুপাশের থাকা লোকালয়ের মানুষজন। তখনই লরির চালক বাইরে থাকা লুকিংগ্লাস দেখে জানতে পারেন যে ভয়াবহ আগুন জ্বলছে লরির ওপর। এরপরই লরির চালক লরিটিকে দ্রুতগতিতে চালিয়ে লোকালয় ছাড়িয়ে চলে আসতে থাকেন।

ঝিলে পড়ার ঠিক আগের মুহূর্তে লরিটি

ওই সময় ফাঁকা একটি স্থানে তিনি দেখতে পান ঝিল বা জলাশয়। চালক রাস্তার পাশে থাকা ওই জলাশয়ের ঢালু অংশে লরিটি গড়িয়ে নিয়ে যান যাতে লরিটি যতদূর সম্ভব কাৎ হয়ে পড়ে। লরিটি জলাশয়ের দিকে উল্টে পড়ার মুখেই লরিটি থেকে ঝাঁপিয়ে পড়েন তিনি। লরিটিও উল্টে যায় ঝিলের মধ্যে।

স্থানীয় এক প্রত্যক্ষদর্শী প্রতাপ প্রামানিক জানিয়েছেন, এক অবিশ্বাস্য দৃশ্য দেখলাম আমরা।দাউ দাউ করে আগুন জ্বলা স্বত্ত্বেও লরির চালক ঠান্ডা মাথায় লরিটিকে চালিয়ে নিয়ে লোকালয়ের বাইরে নিয়ে গেলেন। আমরা তো ভেবেছিলাম আগুন জ্বলছে দেখার পর লরি চালক লরি ছেড়ে দিয়ে নিজের জীবন বাঁচাবে। যদি লোকালয়ের মধ্যে লরিটি ছেড়ে ওই চালক নেমে পড়তেন তবে। লরিটি তো পুরো পুড়েই যেত তারই সাথে লরির তেল ট্যাংকে বিস্ফোরণ ঘটে আশেপাশের ঝুপড়ি ঘর গুলিও পুড়ে যেতে পারত। মানুষেরও ক্ষতি হতে পারত। চালক তা না করে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে জ্বলন্ত লরিটি লোকালয়ের বাইরে নিয়ে গেছেন। আমরা গ্রামবাসীরা ওনার কাছে কৃতজ্ঞ।

ওদিকে লরির চালক স্থানীয় এলাকাটিকে দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা ও লরিটিকে ভস্মীভূত হওয়ার হাত থেকে রক্ষা করলেও, লরি থেকে ঝাঁপ দিয়ে পায়ে গুরুতর চোট পেয়েছেন। ঘটনার সময় পিন্ডরুই বাজার থেকে গোবর্ধনপুর স্কুল অবধি মোবাইল পেট্রলিং করছিল পিংলা থানার। ওই পেট্রলিংয়ের দায়িত্বে থাকা পুলিশ আধিকারিক ASI মোহন সামন্ত চিৎকারে ছুটে আসেন ঘটনাস্থলে। খবর দেওয়া হয় পিংল থানায় পরে ঘটনাস্থলে আসেন পিংলা থানার ভারপ্রপ্ত পুলিশ আধিকারিক সুদীপ ঘোষাল। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান লাখ খানেক টাকার ক্ষতি হয়েছে। চালকের প্রাথমিক চিকিৎসা করা হয়েছে। পরে লরিটিকে তোলার ব্যবস্থা করে পুলিশ।

- Advertisement -
Latest news
Related news