Sunday, July 21, 2024

Ghatal: মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ারম্যানকে হটিয়ে বিজেপির সমর্থনে তৃনমূলের নতুন চেয়ারম্যান খড়ার পৌরসভায়

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: বন্ধ খামে রাজ্য থেকে নাম এসেছিল সন্ন্যাসী দোলইয়ের কিন্তু তাঁকে সরিয়ে বিজেপির সমর্থনে তৃনমূলের অন্য একজন চেয়ারম্যান হয়ে বসলেন। আপাততঃ তাঁকে গিলতেও হবে কারন চেয়ারম্যান নির্বাচনের পর ৬ মাস না গড়ালে অনাস্থা আনা যায়না। পশ্চিম মেদিনীপুরের ৭টি পৌরসভার মধ্যে খড়ার পৌরসভার এই ঘটনায় রীতিমত মুখ পুড়ল পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা তৃনমূলের। উল্লেখ্য চেয়ারম্যান নির্বাচনকে ঘিরে সকাল থেকেই টান টান উত্তেজনা ছিল খড়ারে। মোতায়েন হয়েছিল বিশাল পুলিশ বাহিনী। ১০ টি ওয়ার্ড বিশিষ্ট খড়ার পৌরসভায় শপথ গ্রহণকে ঘিরে টানা পোড়েন ও চরম উত্তেজনা ছিল ঘাটাল মহকুমার খড়ারে। কারন রাজ্যের প্রস্তাবিত চেয়ারম্যানকে মানতে খড়ার পৌর এলাকার সভাপতি ও ৭ নম্বর ওয়ার্ড থেকে জয়ী কাউন্সিলর অদ্যুৎ মন্ডল গোষ্ঠী।যে কারনে শপথ গ্রহণের প্রথম পর্বে খড়ার পৌরসভার সামনে তৃণমূলের দুই পক্ষের ব্যাপক বিক্ষোভে ভন্ডুল হয়ে যায় শপথ গ্রহণ অনুুুষ্ঠান।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

সহমতের ভিত্তিতে চেয়ারম্যান নির্বাচন না হওয়ায় দ্বিতীয় রাস্তা বাছতে হয় প্রশাসনকে এবং তা হল নির্বাচিত কাউন্সিলরদের ভোটাভুটি। এক্ষেত্রে দুই প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী রাজ্যের মনোনীত সন্ন্যাসী দোলই ও বিদ্রোহী কাউন্সিলর অদ্যুৎ মন্ডলের সমর্থনে মোট ৮ কাউন্সিলরের ৪-৪ ভোট পড়ে। এরপরই বিজেপির জয়ী দুই কাউন্সিলর অদ্যুৎ মন্ডলের সমর্থনে ভোট দিলে রাজ্য নেতৃত্বের মনোনীত চেয়ারম্যান সন্ন্যাসী দোলইকে পরিবর্তন করে ভোটাভুটিতে জয়ী হন খড়ার পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডের তৃণমূলের জয়ী কাউন্সিলর অদ্যুৎ মন্ডল। ভোটাভুটিতে পরাস্ত হয়ে চেয়ারম্যান পদ থেকে ছিটকে গেলেন তৃণমূলের রাজ্য নেতৃত্বের ঘোষিত কাউন্সিলর সন্ন্যাসী দোলই। গোটা অবস্থা দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে দেখতে হয় জেলা তৃনমূল নেতৃত্বকে।

জানা গেছে সন্ন্যাসী দোলই বনাম তৃণমূলের অপর গোষ্ঠী তথা খড়ার শহর তৃণমূলের সভাপতি তথা ৭ নং ওয়ার্ডে তৃণমূলের টিকিটে জয়ী অদ্যুৎ মন্ডলের সাথে টক্করের শুরু হয়েছিল গতকাল রাজ্যের পাঠানো খাম খোলার পর থেকেই। প্রস্তুতিও শুরু হয় সেই মত ।শেষমেষ ৬-৪ ব্যবধানে ভোটাভুটি হয় এবং তাতে বিজেপির দুই কাউন্সিলরের সমর্থন পেয়ে ভোটাভুটিতে জয়ী হয়ে খড়ার পৌরসভার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন অদ্যুৎ মন্ডল। এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন ঘাটাল সাংগঠনিক জেলা তৃণমূলের সভাপতি আশিষ হুদাইত। তিনি বলেন, ‘ যা ঘটেছে তা সম্পূর্ণ দলীয় নীতির পরিপন্থী। এরা আদৌ তৃনমূল কংগ্রেসের সৈনিক কিনা ভাবতে হবে। গোটা বিষয়টি উচ্চ নেতৃত্বকে জানিয়েছি।’

এদিকে  চেয়ারম্যান নির্বাচনে তৃনমূলের প্রার্থীকে সমর্থন কী তৃনমূলেরই  একটি অংশের সঙ্গে বিজেপির যোগসাজশ? উত্তরে বিজেপির কাউন্সিলরদের বক্তব্য, ” আমাদের নিজেদের চেয়ারম্যান হবার জায়গা নেই। জনপ্রতিনিধি হিসাবে আমাদের কর্তব্য পৌর এলাকার উন্নয়ন। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে আমরা অদ্যুৎবাবুকেই ভোট দিয়েছি। আমাদের মনে হয়েছে সন্ন্যাসীবাবুর চাইতে অদ্যুৎবাবুর সাথে জনগনের নিবিড় যোগসূত্র রয়েছে। তিনি  দক্ষতার সাথে উন্নয়ন কাজ করতে পারবেন। এটা ওই পরিস্থিতে তাৎক্ষণিক সিদ্ধান্ত।”

অন্যদিকে বিজেপির সমর্থনে  জয়ী হওয়া নিয়ে চেয়ারম্যান অদ্যুৎ মন্ডল বলেন, ‘ পৌর এলাকার স্বার্থ ও দলের স্বার্থের বদলে যাঁরা নিজের স্বার্থ দেখেন এমন কিছু মানুষ দলটার দখল নেওয়ার চেষ্টা করছে। মমতা ব্যানার্জী আমার নেত্রী তাঁর আদেশ আমার শিরোধার্য হলেও স্থানীয় ওই মতলব বাজদের জন্যই এই পরিস্থিতি তৈরি হল। দল খতিয়ে দেখুক আসল সৈনিক কারা?

- Advertisement -
Latest news
Related news