Tuesday, April 16, 2024

Kharagpur Fire: ১লা বৈশাখের রাতেই খড়গপুর গ্রামীনে পৌনে ১কোটির অগ্নিকান্ড! পুড়ে ছাই লরি এবং ধান কাটার মেশিন, প্রাণে বাঁচলেন দুই চালক

On the first day of the Bengali year, a lorry with a paddy cutting machine or harvester was reduced to ashes due to a terrible fire. In all, the amount of damage is about Rs. The incident took place on Friday at a place called Arun under Sankoya Gram Panchayat under Kharagpur Rural Police Station. Upon receiving the news, the fire brigade went from Kharagpur city and tried to extinguish the fire, but the lorry with valuable machinery could not be saved. According to eyewitnesses, a 33,000-kilovolt high-voltage power line passed through the area. This electricity is coming directly from Kolaghat for the needs of industries in Narayangarh and adjoining rural Kharagpur. The harvester on the lorry came in contact with the wire and caught fire as it passed through this part of the road. The fire broke out in the thick and giant rubber tires of the vehicle, which quickly spread to the lorry section and the lorry also ignited.

- Advertisement -spot_imgspot_img

উদয়ন সিনহা: বাংলা বছরের প্রথম দিনেই ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের জেরে পুড়ে ছাই হয়ে গেল একটি ধানকাটার মেশিন বা হারভেস্টার (Harvester Machine)সঙ্গে একটি লরিও। সব মিলিয়ে ক্ষতির পরিমাণ প্রায় পৌনে ১ কোটি টাকার সম্পত্তি। শুক্রবার ঘটনাটি ঘটেছে খড়গপুর (Kharagpur) গ্রামীন থানার অন্তর্গত সাঁকোয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের অধীনে আরুন নামক স্থানে। খবর পেয়ে খড়গপুর শহর থেকে দমকল গিয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা করলেও বাঁচানো যায়নি মূল্যবান যন্ত্রযান সহ লরিটিকে।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে ধান কাটা শুরু হয়েছে। তারই মধ্যে খবর এসেছে প্রাকৃতিক দুর্যোগেরও। ফলে তড়িঘড়ি পাকা ধান ঘরে তোলার জন্য হারভেস্টার বা ধানকাটা যন্ত্রযান ব্যবহার করছেন বহু কৃষক। বৃহস্পতিবার সেরকমই একটি যন্ত্রযান নিয়ে গ্রামীন খড়গপুরেরই বসন্তপুর থেকে নারায়নগড় থানার ভদ্রকালী গ্রামের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিল লরিটি। হাওড়া-মুম্বাই ৬নম্বর জাতীয় সড়ক (Howrah-Mumbai National Highway No-6)

ধরে আসারপর মাদপুরঘাট থেকে লরিটি ভদ্রকালীর রাস্তায় নামে। সাঁকোয়া লক পেরিয়ে আরও কয়েক কিলোমিটার দক্ষিনে আরুন। দুর্ঘটনাস্থল গন্তব্য থেকে ৫কিলোমিটার দূরে। প্রত্যক্ষদর্শী গ্রামবাসীরা জানিয়েছেন, এই জায়গায় ৩৩হাজার কিলোভোল্ট (33 KV Transmission Line) উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন বিদ্যুৎ পরিবাহী তার রাস্তার ওপর দিয়ে পের হয়েছে। নারায়নগড় ও সংলগ্ন গ্রামীন খড়গপুরের শিল্পকারখানাগুলির প্রয়োজনে এই বিদ্যুৎ সরাসরি কোলাঘাট (Kolaghat Thermal Power Plant) থেকে আসছে। রাস্তার এই অংশে বেশ কিছুটা নিচে দিয়ে যাওয়ায় লরির ওপরে থাকা হারভেস্টার যন্ত্রযানটি ওই তারের সংস্পর্ষে চলে আসে এবং আগুন ধরে যায়। যন্ত্রযানটির মোটা এবং বিশালাকার রাবারের টায়ারে আগুন লেগে তা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে লরির অংশে এবং লরিটিও দাউদাউ করে জ্বলে ওঠে।

এই ছবিটি প্রতীকি। বাকি সমস্ত ছবি আরুন গ্রামবাসীদের দেওয়া

লরির চালক বলেন, ‘আগুন লাগার পরেও আমি লরিটি চালিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলাম যাতে আশেপাশে কোনও জলাশয়ে লরি সমেত যন্ত্রযানটি ডুবিয়ে দিতে পারি। কিন্তু তেমন জলাশয় নজরে না আসায় আমি ও ওই যন্ত্রযানের চালক জ্বলন্ত গাড়ি থেকে নেমে পড়ি কারন এরপর গাড়িতে থাকলে ২জনকেই পুড়ে মরতে হত। খবর পেয়ে স্থানীয় মানুষজন ছুটে আসেন। আসে দমকলের একটি ইঞ্জিন। প্রায় দেড় ঘন্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে কিন্তু ততক্ষণে পুড়ে ছাই দুটি যানই। স্থানীয় জনতা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছেন, এই প্রথম নয়। এর আগেও বহুবার এই ঘটনা ঘটেছে। বিদ্যুৎদপ্তরকে জানানো স্বত্ত্বেও ব্যবস্থা নেয়নি তারা।’

- Advertisement -
Latest news
Related news