Tuesday, April 16, 2024

SSC Corruption Case: SSC দুর্নীতি মামলায় গ্রেফতার শুরু করল CBI ! গ্রেফতার পার্থ চট্টোপাধ্যায় নিযুক্ত নিয়োগ কমিটির প্রধান সহ ২, দেখে নিন আর কারা কারা লাইনে

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: অবশেষে এসএসসি (School Service Commision) নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় গ্রেফতার শুরু করল CBI. আর শুরুতেই গ্রেফতার হলেন এই দুর্নীতি মামলার অন্যতম প্রধান অভিযুক্ত শান্তিপ্রসাদ সিনহা (S.P Sinha)।  বুধবার বিকেলে সিনহাকে গ্রেফতারের পাশাপাশি গ্রেফতার করা হয়েছে প্রাক্তন চেয়ারম্যান অশোক সাহাকেও। উল্লেখ্য SSC দুর্নীতি মামলার তদন্তে নেমে CBI রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে জিজ্ঞাসাবাদ করলেও তাঁকে আর্থিক দুর্নীতির মামলায় গ্রেফতার করে ইডি বা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। কিন্তু সরাসরি SSC দুর্নীতি মামলায় গ্রেফতার এই প্রথম এবং তা একেবারে মাথা দিয়েই শুরু করল CBI.

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

হাইকোর্ট নিযুক্ত বিচারপতি রঞ্জিত বাগ কমিটি জানিয়েছিলেন, বেআইনি নিয়োগের জন্য পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের তৈরি করা এসএসসি-র উপদেষ্টা কমিটির মাথায় ছিলেন শান্তিপ্রসাদ সিনহা। বাগ কমিটি এই দুর্নীতির জন্য ওই কমিটিকেই দায়ী করেন। ওই কমিটিকে অসংবিধানিক আখ্যা দিয়ে নিয়োগ দুর্নীতির অভিযোগ প্রসঙ্গে এর আগেই শান্তি প্রসাদ সিনহার ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিল বাগ কমিটি। অতীতে ইডি এবং সিবিআই – দুই তদন্তকারী সংস্থাই শান্তিপ্রসাদ সিনহার বাড়িতে তল্লাশি চালিয়েছিল। তাদের আয়-ব্যয়ের হিসেব থেকে শুরু করে আরও বিভিন্ন নথি হাতে এসেছিল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকদের হাতে। সেই সূত্র থেকেই কেন্দ্রীয় গোয়েন্দাদের সন্দেহ জাগে এসএসসি উপদেষ্টা কমিটির প্রাক্তন আহ্বায়ক শান্তি প্রসাদ সিনহার একটি বড় ভূমিকা ছিল নিয়োগ দুর্নীতির ক্ষেত্রে।

জানা গিয়েছে, গত মাস খানেক ধরে দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদের পর বুধবার ফের শান্তিপ্রসাদ সিনহা ও  অশোক সাহার বাড়িতেই জিজ্ঞাসাবাদ করেন সিবিআই আধিকারিকরা। দীর্ঘক্ষণ জিজ্ঞাসাবাদের পর বুধবার বিকেলে তাঁদের গ্রেফতার করার সিদ্ধান্ত নেয় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। সংস্থা দাবি করেছে এই দু’জন তাঁদের ঠিকমত সহায়তা করছিলেন না।

উল্লেখ্য গত ১১ এপ্রিল, বাগ কমিটি গ্রুপ D নিয়োগের মামলায় ডিভিশন বেঞ্চে প্রথম রিপোর্ট পেশ করে। রিপোর্টে বলা হয়, দুর্নীতিতে সরাসরি যুক্ত SSC-র প্রাক্তন উপদেষ্টা শান্তিপ্রসাদ সিন্হা এবং মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়। তৎকালীন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের অনুমতিতে যুগ্মসচিব যে পাঁচ সদস্যের কমিটি গঠন করেছিল তা বেআইনি।

হাইকোর্ট নিযুক্ত অনুসন্ধান কমিটির রিপোর্টে, ৬০৯টি ভুয়ো সুপারিশপত্র উল্লেখ করা হয়। দুর্নীতির প্রসঙ্গে রিপোর্টে বলা হয়, স্কুল সার্ভিস কমিশনের প্রাক্তন চেয়ারম্যান সুবীরেশ ভট্টাচার্য স্কুল সার্ভিস কমিশনের আরেক প্রাক্তন চেয়ারম্যান শর্মিলা মিত্র SSC-র আধিকারিক মহুয়া বিশ্বাস, শুভজিৎ চট্টোপাধ্যায় ও শেখ সিরাজউদ্দিনের বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্ত করা উচিত। অনুসন্ধান কমিটির রিপোর্টে স্কুল সার্ভিস কমিশনের প্রাক্তন চেয়ারম্যান সৌমিত্র সরকার, স্কুল সার্ভিস কমিশনের প্রাক্তন সচিব অশোককুমার সাহা, SSC-র প্রোগ্রাম অফিসার সমরজিৎ আচার্য, SSC-র প্রাক্তন উপদেষ্টা শান্তিপ্রসাদ সিনহা নাম উঠে আসে। স্বভাবতই বাকিদেরও CBI গ্রেফতার করে কিনা সেটাই এখন দেখার।

- Advertisement -
Latest news
Related news