Monday, May 20, 2024

Bengal Municipal Poll: বনগাঁ থেকে বসিরহাট, ভোট লুটের লম্বা অভিযোগ! রাজপুর-সোনারপুরের বুথে সকাল থেকেই আসেনি ভোটার

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: সকাল সকাল ভোট দিন! সকাল তো দূরের কথা সকালের পরেও দেখা মেলেনি কোনও ভোটারের। হ্যাঁ, এমনই ঘটনা রাজপুর- সোনারপুর পৌর এলাকার। ভোট শুরুর আগেই রাজপুর-সোনারপুর পুরসভার ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের রাজপুর বিদ্যানিধি স্কুলে ঢুকে বহিরাগতদের তাণ্ডব। আতঙ্কে সকালে ভোট দিতে যাননি কোনও ভোটার। বিরোধীদের অভিযোগ, আগের দিন রাত থেকেই এলাকায় হুমকি দিচ্ছে তৃণমূল। সকালে বুথে ঢুকে তাণ্ডব চালায় বহিরাগতরা। বাম, কংগ্রেস, নির্দল এজেন্টদের মারধর করে বুথ থেকে বের করে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। পুলিশের সঙ্গে হাতাহাতি বেধে যায় বিরোধীদলের এজেন্টদের। পরে লাঠিচার্জ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ। ঘটনায় রিপোর্ট তলব করল নির্বাচন কমিশন।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

ওদিকে বনগাঁ থেকে বসিরহাট,শুধু বিরোধী প্রার্থী নন, নির্দল প্রার্থীরাও তৃণমূলের বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ তুলেছেন। নির্দল প্রার্থী বলেন, ‘‘বুথে ঢুকতে দিচ্ছে না। মারধর করছে, ভোট লুঠ করছে তৃণমূল। আটকানো যাচ্ছে না। অবাধে চলছে ছাপ্পা, এই অভিযোগ তুলে কেঁদে ফেললেন বিজেপি প্রার্থী। রবিবার সকালে বনগাঁ পুরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপি প্রার্থী সীমা বিশ্বাস বুথের বাইরে কেঁদে ভাসালেন। তাঁর অভিযোগ, ওই ওয়ার্ডের ঠাকুর পল্লি বনবিহারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বুথে ভোট লুঠ করছেন তৃণমূল কর্মীরা। কোনও ভাবে তা আটকানো যাচ্ছে না। যদিও তা অস্বীকার করেছে শাসক দল।
শুধু বিজেপি প্রার্থী নন, ওই ওয়ার্ডের নির্দল প্রার্থীও তৃণমূলের বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ তুলেছেন। নির্দল প্রার্থী বলেন, ‘‘বুথে ঢুকতে দিচ্ছে না। তাঁকে এবং তাঁর নির্বাচনী এজেন্টকে মারধর করেছেন তৃণমূল প্রার্থীর স্বামী।’’ ওই নির্দল প্রার্থীর দুই মেয়ের ফোন ভেঙে দেওয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ। তাঁরা পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন।

অন্যদিকে পুরভোট শুরু হতে না হতেই বসিরহাটে একাধিক অভিযোগ উঠে এসেছে বিরোধী দল থেকে। নির্দল প্রার্থীদের মারধর, ইভিএম মেশিন ভাঙচুর, এজেন্টদের বুথে ঢুকতে বাধা দেওয়া এছাড়াও ছাপ্পা ভোটের অভিযোগ উঠেছে তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। কিন্তু সেই সমস্ত অভিযোগ যদিও মানতে নারাজ তৃণমূল। এদিকে বিরোধীদলের অভিযোগ পুলিশ কর্মীরাও এ ব্যাপারে ঠুঁটো জগন্নাথ। সবকিছু দেখতে পেলেও কিছুই করতে পারবেন না তাঁরা। বসিরহাট পুরসভার অন্তর্গত ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে বসিরহাট কলেজের সামনে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখালো বিজেপির সদস্যরা। তাদের অভিযোগ ওই ওয়ার্ডের বসিরহাট কলেজের বুথটি তৃণমূল দখল করে সেখানে দেদার ছাপ্পা দিচ্ছে তৃণমূল। কোন ভোটারদেরকে বুথে যেতে দেওয়া হচ্ছে না। বুথের ভিতরে বিরোধী দলের প্রার্থীদের এজেন্টকে বসতে দেওয়া হচ্ছে না। বারবার পুলিশ কর্মীদের এ বিষয়ে অভিযোগ জানানো হয়েছে। কিন্তু তারপরেও কোন কিছুই করতে দেখা যায়নি তাদের।

যার ফলে এবার বিজেপির কর্মী-সমর্থকরা নেমেছে বসিরহাটের রাস্তায়। কলেজের সামনে টায়ার জ্বালিয়ে রীতিমতো রাস্তা অবরোধ করতে দেখা যায় বসিরহাট পুরসভার ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপি কর্মী সমর্থকদের। রীতিমতো উত্তপ্ত হয়ে ওঠে সেখানকার পরিস্থিতি। বন্ধ হয়ে যায় যান চলাচল। অসুবিধার মুখে পড়তে হয় সাধারণ মানুষকে। এই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে পুলিশ সেখানে এসে পৌঁছলে পুলিশকে ঘিরেও বিক্ষোভ দেখায় বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। এদিন পূর্ববর্ধমানের কালনাতেও ভোট লুটের প্ৰতিবাদে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন বামপন্থী কর্মীরা।

- Advertisement -
Latest news
Related news