Sunday, April 14, 2024

Nurses Protest : হাসপাতাল চত্বরেই নার্সের কপালে সিঁদুর লাগানোর চেষ্টা! পর্যাপ্ত নিরাপত্তার দাবিতে চন্দ্রকোনারোডের হাসপাতালে বিক্ষোভে নার্সরা

- Advertisement -spot_imgspot_img


নিজস্ব সংবাদদাতা: নিজের কাজ সেরে কোয়ার্টারে ফেরার পথে একজন নার্সের কপালে সিঁদুর লাগানোর চেষ্টা করল এক যুবক। প্রকাশ্য দিবালোকেই এই ঘটনার পাশাপাশি ওই নার্সকে শারিরীক হেনস্তা করার অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করল গড়াবেতা পুলিশ। জানা গেছে অভিযুক্ত যুবক একজন স্বাস্থ্যকর্মীই ছেলে। তাঁর বিরুদ্ধে হাসপাতাল চত্বরেই মদ সহ নানা মাদকজাত দ্রব্যের আসর বসানোর অভিযোগও রয়েছে। জানা গেছে অভিযুক্ত ওই যুবকের নাম পাপন মল্লিক।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

এদিকে খোদ হাসপাতাল চত্বরেই এমন ঘটনা ও বাড়তে থাকা সমাজবিরোধী কার্যকলাপের বিরুদ্ধে চন্দ্রকোনা রোডের ওই হাসপাতালে বিক্ষোভ দেখালেন নার্স সংগঠনের প্রতিনিধিরা। সোমবার ওই হাসপাতালের সুপারের দপ্তরের সামনেই বিক্ষোভে সামিল হন পশ্চিমবঙ্গ নার্স সংগঠনের একটি প্রতিনিধি দল। এই সংগঠনের অভিযোগ আরও যে খোদ হাসপাতাল চত্বরে এমন ঘটনা ঘটার পরেও যথাযথ ব্যবস্থা নেননি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। উল্টে ঘটনা যাতে বাইরে ছড়িয়ে না যায় তার জন্য আপ্রান চেষ্টা চালায়। ঘটনাটি ঘটেছে চন্দ্রকোনা রোড এলাকার ডিগ্রি এম আর বাঙ্গুর টি বি স্যানোটোরিয়াম হাসপাতালে।

গড়বেতা থানার অন্তর্গত চন্দ্রকোনা রোড পুলিশ ফাঁড়িতে লিখিত অভিযোগ জানিয়ে আক্রান্ত ওই নার্স বলছেন, ঘটনায় প্রকাশ গত ১৬ আগষ্ট সকাল বেলা ডিউটি সেরে নার্সের পোশাক পরা অবস্থায় নিজের কোয়ার্টারে ফিরছিলেন এক নার্স। রাস্তার উপর  স্কুটি  আটকিয়ে শারিরীক হেনস্তা সহ গলা টিপে  ধরে ছিনাতাই করা চেষ্টা হয় মোবাই এবং পার্স। চিৎকার করলে কপালে সিঁদুর জাতীয় লাল রঙের গুঁড়ো মাখিয়ে দেওয়া হয়। সেই সময় হাসপাতাল চত্বরের কোয়াটার থেকে অন্যান্য স্টাফ ও নার্সরা ছুটে এলে ঐ যুবক দখল করে থাকা কোয়ার্টারে ঢুকে গা ঢাকা দেয়। আক্রান্ত নার্সের অভিযোগ, “তারপর থেকেই হাসপাতাল চত্বরে নানান ঘটনা সহ কেনো অভিযোগ দায়ের করা হলো এমন প্রশ্ন তুলে এক হুমকি চলছে। এরপরই সোমবার এক যোগে সমস্ত নার্স মিলে সুপার কে ঘেরাও করে বিষয়টির প্রতিকার চান। তারা অভিযোগ করেন যে নিরাপত্তা হীনতায় আতঙ্কে ভুগছেন নার্সরা। হাসপাতালের সুপারকে দীর্ঘক্ষন ঘেরাও করে এমন ঘটনার প্রতিকার চাওয়ার পাশাপাশি নার্সরা বিস্ময় প্রকাশ করে বলেন শারিরীক হেনস্তা সহ আক্রান্ত হলেন এক জন নার্স  হাসপাতাল চত্বরে। আর সেই কাজ  করেছে  মাদক কর্মকান্ডে যুক্ত  এক যুবক।
অভিযোগকারিনী জানিয়েছেন, অভিযুক্ত যুবক বাপন মল্লিক খড়গপুর মহকুমা হাসপাতালে গ্রুপ-ডি পদে চাকরি করেন এমন ব্যাক্তির ছেলে। ওই পরিবার চন্দ্রকোনার ডিগ্রিতে এই হাসপাতালের একটি কোয়ার্টার দখল করে  আছেন। তাতেও মদত রয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের। কারন বিনিময়ে হাসপাতালের এক আধিকারিকের বাড়ির ফাই ফরমাশ খেটে দেয় ওই যুবক। সেই যুবকই মাদক কান্ডের সাথে যুক্ত সহ সারা দিন রাত ক্যাম্পাসে মাদক নেশার আসর বসায়। বিষয়টি হাসপাতাল সুপার কে জানালে তিনি বিষয়টি নিয়ে চুপচাপ থাকতে বলেন।

ঘটনার পরে পুলিশ ফাঁড়িতে অভিযোগ দায়ের করেন আক্রান্ত নার্স । হাসপাতাল চত্বরে এমন অসামাজিক মাদক চক্র সহ নার্সের উপর আক্রমণের ঘটনায় বহিরাগত দের কেনো হাসপাতালের কোয়ার্টারে আশ্রয় দেওয়া হবে তার কৈফিয়ত সহ নার্স সহ সমস্ত স্টাফদের নিরাপত্তার দাবীতে হাসপাতালের সুপার কে ঘিরে বিক্ষোভ হয় সোমবার। পুলিশ অবশ্য এফআইআর দায়ের করার পরই যুবককে গ্রেপ্তার করেছে। এক পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন এই ঘটনায় শ্লীলতাহানি, যৌন হেনস্থা, সরকারি কর্মীকে কাজে বাধা দান সহ চারটি ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে।

- Advertisement -
Latest news
Related news