Monday, April 15, 2024

IIT Kharagpur: আইআইটি খড়গপুরের ২৫০ শয্যার হাসপাতাল চালুর পথে। ৯০শয্যার আইসিইউর ৪৪ শয্যা নির্মিত হল প্রাক্তনী অর্জুন মালহোত্রার দানেই

Another addition to the history of IIT Kharagpur is the industrialist Arjun Malhotra. Arjun Malhotra, an alumnus of IIT Kharagpur, has donated 44 ICU beds to Dr. Shyamaprasad Mukherjee Institute of Medical Science and Research, the only multi-super facilitated hospital in East India. This was stated by IIT Kharagpur Principal Professor Birendra Kumar Tewari on January 12 at the 18th Alumni Day of IIT Kharagpur. Malhotra had earlier set up G S Sanyal School of Telecommunications at IIT Kharagpur with respect to his professor. Later, with his help, Prof M N Faruqui Center for Innovation was established on the IIT campus. Professor Tewari said, 'Outdoor service has already been launched. In addition to the hospital's own building, satellite outdoor has been started in several nearby villages. The purpose is to reduce congestion in the main hospital and reduce the harassment of people traveling. After that we are going to start a 250 bed indoor service for now. There are 160 modern beds with all modern facilities and 90 bed ICUs. There are also 10 baby beds.

- Advertisement -spot_imgspot_img

নরেশ জানা : আইআইটি খড়গপুরের (IIT Kharagpur) ইতিহাসে আবারও নতুন সংযোজন শিল্পপতি অর্জুন মালহোত্রার ( Arjun Malhotra)। আইআইটি খড়গপুর ক্যাম্পাসে গড়ে ওঠা পূর্ব ভারতে একমাত্র মাল্টি সুপার ফেসিলেটেড হাসপাতাল ”ডঃ শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জী ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্স এন্ড রিসার্চ” (Dr Syama Prasad Mookerjee Institute of Medical Science and Research) মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালকে ৪৪টি আইসিইউ শয্যা প্রদান করলেন আইআইটির প্রাক্তনী ও বিশিষ্ট শিল্পপতি অর্জুন মালহোত্রা। ১২ই জানুয়ারি আইআইটি খড়গপুরের ১৮তম প্রাক্তনী দিবসে এমনটাই জানালেন, আইআইটি খড়গপুর অধিকর্তা অধ্যাপক বীরেন্দ্র কুমার তেওয়ারী (Virendra Kumar Tewari)। অধ্যাপক তেওয়ারী জানিয়েছেন, ‘ইতিমধ্যেই আউট ডোর পরিষেবা চালু হয়ে গেছে। হাসপাতালের নিজস্ব ভবন ছাড়াও আশেপাশের কয়েকটি গ্রামে শুরু হয়েছে স্যাটেলাইট আউটডোর। উদ্দেশ্যে মূল হাসপাতালে ভীড় কমানো এবং মানুষের যাতায়াতের হয়রানি কমানো। এরপর আমরা আপাততঃ শুরু করতে চলেছি ২৫০ শয্যার ইনডোর পরিষেবা। যেখানে সমস্ত আধুনিক ব্যবস্থা সম্পন্ন ১৬০টি সাধারণ শয্যা থাকছে আর ৯০টি শয্যার আইসিইউ থাকছে। এছাড়াও থাকছে ১০টি শিশুশয্যা।’

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

আইআইটির তরফে জানানো হয়েছে একটি হাসপাতালে ৯০শয্যার আইসিইউ ব্যবস্থা শুধু খড়গপুর বা পশ্চিম মেদিনীপুর নয় সাধারণভাবে বাংলার কোনও মফঃস্বলেই নেই। আর সেই থেকে প্রমাণিত হয় যে শুরু থেকেই কর্তৃপক্ষ মানুষের জীবনদায়ী পরিষেবার ওপরেই অধিক গুরুত্ব আরোপ করেছে। ২০১৮ সালে তাঁর জীবন ভর কৃতিত্বের জন্য আইআইটি খড়গপুর কর্তৃক পুরষ্কৃত শিল্পপতি অর্জুন মালহোত্রা একাই ওই ৯০ শয্যার মধ্যে ৪৪টি শয্যা প্রতিস্থাপন করতে আইআইটিকে আর্থিক সহায়তা দিয়েছেন।

উল্লেখ্য অর্জুন মালহোত্রা ১৯৬৫-৭০ পর্যন্ত আইআইটি খড়গপুরের ইলেকট্রনিকস ও ইলেকট্রিক্যাল কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের (Electronics and Electrical Communication Engineering) ছাত্র ছিলেন এবং ১৯৭৫ সালেঅনার্স সহ স্নাতক হন। ওই বছর আইআইটি খড়গপুর প্রদত্ত বিধানচন্দ্র রায় স্বর্ণপদক( Bidhanchandra Roy Gold Madel) অর্জন করেছিলেন। এইচিসিএলের (HCL Group) প্রতিষ্ঠাতা তথা ভারতের তথ্য প্রযুক্তির দুনিয়ায় নবযুগের দিশারী অর্জুন মালহোত্রা এর আগে আইআইটি খড়গপুরেই নিজের অধ্যাপককে সম্মান দিয়ে গড়ে তুলেছিলেন G S Sanyal School of Telecommunications. পরবর্তীকালে তাঁর অর্থ সাহায্যেই আইআইটি ক্যাম্পাসে গড়ে ওঠে Prof M N Faruqui Center for Innovation. এছাড়াও বিভিন্ন সময়ে তিনি নিজের প্রাক্তন প্রতিষ্ঠানের পাশে দাঁড়িয়েছেন বিভিন্ন আর্থিক সাহায্য নিয়ে।

আইআইটির অধিকর্তা আরও জানিয়েছেন, ‘ এই হাসপাতালের উদ্দেশ্য হল মানুষের বহনযোগ্য ক্ষমতার মধ্যেই বিশ্বমানের স্বাস্থ্য পরিষেবা দেওয়া এবং চিকিৎসা বিজ্ঞান ও চিকিৎসা প্রযুক্তি নিয়ে গবেষণা ও চিকিৎসা সংক্রান্ত আধুনিক যন্ত্রপাতির উদ্ভাবনের জন্য চেষ্টা করা।’ তিনি অর্জুন মালহোত্রাকে বিশেষ ভাবে ধন্যবাদ প্রদান করার পাশাপাশি বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে থাকা প্রাক্তনীদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন, আইআইটির কর্মকান্ডে তাঁদের বিশেষ অবদানের জন্য। আইআইটির রেজিস্টার তমাল নাথ জানিয়েছেন, ‘ আমাদের ইনডোরের সমস্ত পরিকাঠামো তৈরি হয়ে গেছে। খুব শীঘ্রই এই হাসপাতালকে জাতির উদ্দেশে উৎসর্গ করা হবে।’ পাশাপাশি দ্রুত পঠনপাঠন শুরু হয়ে যাবে বলেও তিনি জানিয়েছেন।

- Advertisement -
Latest news
Related news