Saturday, May 25, 2024

Farm Law & Kharagpur Rally: কৃষি আইন বাতিলের ঘোষণার পরই দেশজুড়ে বিজয় মিছিল! মিছিল হল খড়গপুর মেদিনীপুর হলদিয়া ঝাড়গ্রামেও

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: প্রায় ১ বছরের লড়াই শেষে জয় এসেছে দিল্লিকে ঘিরে বসে থাকা লক্ষ লক্ষ কৃষক আন্দোলনকারীর। মাসের পর মাস অনড় হয়ে বসে থাকা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী শেষ অবধি শুক্রবার সকালেই ঘোষণা করেছেন বিতর্কিত ৩টি কৃষি আইন প্রত্যাহার করে নেবে সরকার। আর সেই ঘোষণার পর থেকেই দেশ জুড়ে বিজয় মিছিলে সামিল হয়েছেন কৃষকদের পাশাপাশি বিভিন্ন অংশের মানুষজন। আনন্দে দেশের কোথাও কোথাও মিষ্টি বিতরণ করতেও দেখা গিয়েছে। গাজীপুর সীমান্তে কৃষকরা বিজয় মিছিল করেন। মিছিল থেকে কিষান একতা জিন্দাবাদ স্লোগান ওঠে। কৃষকদের সেই জয়কে অভিনন্দন জানিয়ে এদিন মিছিল হতে দেখা গিয়েছে বাংলার বিভিন্ন অংশের সাথে দুই মেদিনীপুর ও ঝাড়গ্রামেও।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

এদিন বড়সড় মিছিল হয়েছে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার মেদিনীপুর ও খড়গপুর শহরে। মেদিনীপুরে মিছিলের আয়োজন করেছিলেন বামপন্থী গণসংঠন গুলি। বিশাল এই মিছিল মেদিনীপুর কলেজ সংলগ্ন এলাকা থেকে বেরিয়ে প্রায় অর্ধেক শহর পরিক্রমন করতে দেখা যায়। মিছিল থেকে অনেকে আবীর মাখেন। ঝাড়গ্রামে এদিন দলের বিভিন্ন বৈঠকে ম্যারাথন বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন সিপিএমের শীর্ষ নেতৃত্ব তথা বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু। ওখান থেকেই এই জয়কে গনআন্দোলনের একটি তাৎপর্যপূর্ন দিন বলে জানিয়েছেন তিনি। এদিন ঝাড়গ্রামেও বিজয় মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। শিল্প শহর হলদিয়াতে একটি বড়সড় বিজয় মিছিল বের করেছিলেন সিপিএমের হলদিয়া দক্ষিণ এরিয়া কমিটি। সিটি সেন্টারের পথ ধরে সেই মিছিল ঘুরেছে শহরের একটি বড় এলাকা জুুড়েই। খড়গপুর শহরে এদিন আলাদা করে একটি বিজয় মিছিলের আয়োজন করেছিলেন ‘আমরা বামপন্থী’ সংগঠনের পক্ষ থেকে।

 প্রতিটি মিছিলের সুরু অথবা শেষে উপস্থিত বিভিন্ন নেতৃবৃন্দর তরফে কৃষকদের এই জয় ও প্রধানমন্ত্রীর পিছু হটার বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করা হয়। বক্তারা তুলে এনেছেন আন্দোলন চলাকালীন কৃষকদের ওপর নামিয়ে আনা বিভিন্ন পুলিশি আক্রমনের বিষয়। উল্লেখ্য ২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে ভারতে পাশ হয় তিন কৃষি আইন। এই আইনের বিরোধিতায় পাঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ থেকে হাজার হাজার কৃষক এবং অন্যান্য রাজ্য থেকেও কৃষকরা আন্দোলন শুরু করে। আন্দোলন তীব্র থেকে আরো তীব্রতর হয়। করোনা সংক্রমণের মধ্যেও নিজেদের আন্দোলন চালিয়ে গেছেন কৃষকরা। আন্দোলন চলাকালীন বহু কৃষকের মৃত্যু হয়। কৃষকদের উপর নির্মম অত্যাচার চালায় মোদী অমিত শাহর পুলিশ।

কৃষকদের ওপর সাম্প্রতিক তম বর্বর আক্রমন হয়েছে গত মাসেই।  ৩ অক্টোবর লখিমপুরের টিকোনিয়া গ্রামে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্রের পুত্র আশিস মিশ্র কেন্দ্রের তিন কৃষি আইন বাতিলের প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন কৃষকরা সেই সময় বিক্ষোভরত কৃষকদের গাড়ির চাকায় পিষে দেওয়া হয়। গাড়ি চালাচ্ছিলেন মন্ত্রী-পুত্র আশিষ দাবি প্রত্যক্ষদর্শীদের। কেন্দ্র সরকারের নানা অপচেষ্টা করেও কৃষক আন্দোলনকে থামানো যায়নি। কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে টানা ১১ মাসের বেশি সময় ধরে আন্দোলন করছেন কৃষকেরা। কৃষকদের দীর্ঘদিনের দাবি এদিন মেনে নিতে বাধ্য হল কেন্দ্রের বিজেপি সরকার।

- Advertisement -
Latest news
Related news