Saturday, April 20, 2024

Tragic Accident Garbeta: রাখী পূর্ণিমা উপলক্ষ্যে ফুটবল ম্যাচে অংশ নিতে যাওয়ার পথে পিক-আপ ভ্যান উল্টে নিহত গড়বেতার কিশোর সহ ৩ ! আহত ১৫ জন

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: রাখী পূর্ণিমা উপলক্ষ্যে বাঁকুড়ায় একটি ফুটবল ম্যাচে অংশ নিতে যাওয়ার পথে পশ্চিম মেদিনীপুরের গড়বেতা থানা এলাকায় এক মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল ৩যুবকের। ঘটনায় আহত হয়েছেন প্রায় ১৫জন। এঁদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা সঙ্কটজনক হওয়ায় বাঁকুড়া ও মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজে স্থানান্তরিত করা হয়েছে তাঁদের। পুরো ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে গড়বেতা থানার দেওয়ান এলাকায়।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে মৃতরা হলেন জসিরুদ্দিন চৌধুরী (১৪), কুরবান শেখ (৪৯), জুলফিকার মণ্ডল (৪২)। এঁদের প্রত্যেকের বাড়ি দেওয়ানের বড়াই গ্রামে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে রবিবার রাখী পূর্ণিমা উপলক্ষ্যে গড়বেতা থানার সন্ধিপুর ২ গ্রামপঞ্চায়েতের দেওয়ান গ্রামের একটি ক্লাব থেকে পার্শ্ববর্তী বাঁকুড়া জেলার অন্তর্গত কাসচড়া গ্রামের একটি এক দিবসীয় ফুটবল ম্যাচে অংশ নিতে যাচ্ছিলেন একদল যুবক। তাঁরা একটি পিক-আপ ভ্যান ভাড়া করেছিলেন। সেই পিক-আপ ভ্যানে চড়ে বসেছিলেন গ্রামের আরও কিছু উৎসাহী মানুষ। সব মিলিয়ে পিক-আপ ভ্যানটি রীতিমত ভিড়ে ঠাসা ছিল।

জানা গেছে চমকাইতলা থেকে বোষ্টমমোড় পেরিয়ে ধাদিকা হয়ে বাঁকুড়ার কাসচড়া যাওয়ার পথে বাঁশদা চাতালে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সরাসরি ডিভাইডার ধাক্কা মেরে উল্টে যায় গাড়িটি। গাড়িটি তীব্র গতিতে থাকার ফলে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়েন পিক-আপ ভ্যানে থাকা সব্বাই।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, কেউ চাতালের নীচে পড়ে যান তো কেউ রাস্তার ওপরে। কেউ অনেকটা উঁচুতে উঠে চাতালে পড়ার পর মাথা থেঁতলে যায়, কারও মাথা আবার ফেটে দু-ফাঁক হয়ে যায়। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় একজনের। বাকীদের উদ্ধার করে স্থানীয় মানুষজন পার্শ্ববর্তী গড়বেতা গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে গেলে আরও দু’জনকে মৃত বলে ঘোষণা করে চিকিৎসক।

অন্যদিকে আহত ১৫ জনের মধ্যে ৬ জনকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বাঁকুড়া জেলার বিষ্ণুপুর হাসপাতালে, বাকিদের নিয়ে যাওয়া হয়েছে মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে, যাদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গিয়েছে। ঘটনার পরে পলাতক চালক। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে গড়বেতা থানার পুলিশ। আহতদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা খুবই গুরুতর হওয়ায় আরও মৃত্যুর আশঙ্কা রয়েছে।

- Advertisement -
Latest news
Related news