Monday, May 20, 2024

Kharagpur Poll: ভোট আসতেই ঘুম ভাঙল খড়গপুর RPF য়ের! শুরু বস্তিতে বস্তিতে সক্রিয়তা

Whether the writing is on the wall or not, the flag is not flying. The RPF, the slums in the railway area trembling at the sound of heavy boots, seem to have started ringing the voting bell in Kharagpur, strangely every time a voter wakes up during the polls. This time too there was no exception. A large RPF force from Kharagpur was spotted in the railway slum of ward 16 of the municipality on Friday before the next 26th polls. It was seen that they were cutting only the electricity and TV lines of the slum. When local women try to stop them, they get into fights and even fight. Male RPF forces have also been accused of pushing women away.

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: দেওয়াল লিখন থাক না থাক, ঝান্ডা উড়ুক নাই উড়ুক খড়গপুরের বস্তিতে বস্তিতে RPF সক্রিয় হলেই বুঝতে হবে ভোট এসে গেছে। প্রতিবারই ভোটের সময় অদ্ভুত ভাবেই ভোটের সময় যেন ঘুম থেকে জেগে ওঠে RPF, ভারি বুটের শব্দে কাঁপে রেল এলাকার বস্তিগুলি, বোঝা যায় খড়গপুরে ভোটের বাজনা বাজতে শুরু করেছে।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে
কেবল তার কেটে বাজেয়াপ্ত করে নিয়ে যাচ্ছেন রেল কর্মী/ The railway workers are cutting cable wire and confiscating

ব্যতিক্রম হয়নি এবারও। আগামী ২৭তারিখ ভোট, তার আগে শুক্রবার খড়গপুরের একটি বড়সড় RPF বাহিনীকে দেখা গেল পুরসভার ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের রেল বস্তিতে। দেখা গেল বস্তির বিদ্যুৎ ও টিভির কেবল লাইন কাটছে তারা। স্থানীয় মহিলারা বাধা দিতে গেলে তাদের সঙ্গে বচসা এমনকি ধস্তাধস্তিও বাধে। মহিলাদের ঠেলে সরিয়ে দেওয়ার অভিযোগও উঠেছে পুরুষ RPF বাহিনীর বিরুদ্ধে।

১৮ নম্বর ওয়ার্ডের বিদায়ী তৃনমূল কাউন্সিলর এ পূজা অভিযোগ করেছেন, এদিন বেলার সময় যখন পুরুষরা যে যার কাজে বেরিয়ে গেছে তখনই আসে RPF বাহিনী। তারা নির্বিচারে বিদ্যুৎ ও কেবল সংযোগ কাটতে গেলে বাধা দেন মহিলারা।

IWO অফিসের সামনে বিক্ষোভ বস্তি বাসীর।

আমি খবর পেয়েই ছুটে যাই। উপস্থিত RPF আধিকারিককে জিজ্ঞাসা করি, কেন এটা করছেন।? আধিকারিক জবাব দেন DRM য়ের নির্দেশ রয়েছে। আমি সেই আধিকারিকের কাছে DRM য়ের অর্ডার দেখতে চাইলে উনি দেখাতে পারেননি। বলেছেন, তাঁকে নাকি মৌখিক নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

পূজা অভিযোগ করেন, ‘প্রতিবছরই নির্বাচন আসলে রেল এলাকায় থাকা গরিব বস্তিবাসীদের ওপর RPF য়ের এই অত্যাচার চলে। চলে উচ্ছেদের হুমকি। কোথাও বাড়ি ঘরের আ্যসবেস্টারের চালাও ভাঙে। আর এসবই করা হয় বস্তিবাসীদের চাপে রাখার জন্য, বিজেপির পক্ষে ভোট করানোর জন্য কারন কেন্দ্রে বিজেপি আর আমাদের সাংসদ দিলীপ ঘোষ, বিধায়ক হিরন চট্টোপাধ্যায় বিজেপি। এরপর ত্রস্ত বস্তবাসিদের কাছে বিজেপির লোকেরা আসবে। মানুষকে বলবে, বিজেপিকে ভোট দাও, আমরা তোমাদের নিরাপদে রাখব। এটা পুরানো খেলা, মানুষ ধরে ফেলেছে।’

তৃনমূলের তরফে অভিযোগ করা হয়েছে রেল এলাকার অধীনে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা প্রায় ৫০০ ছোট বড় বস্তি রয়েছে যেখানে রেল কোনও উন্নয়নমূলক কাজ করেনা উল্টে পৌরসভা জল বিদ্যুতের ব্যবস্থা করতে গেলে RPF বাধা দিয়ে থাকে। তারই পাশাপাশি নির্বাচন আসলে শুরু হয় এই ধরনের অত্যাচার। এদিন রেলের নির্মাণ দপ্তর বা IOW অফিসের সামনে বিক্ষোভ দেখানোর পাশাপাশি খড়গপুর টাউন থানায় গিয়েও নিজেদের অসহায়তার কথা তুলে ধরেন ১৮ নম্বর ওয়ার্ড নিউ সেটেলমেন্ট বস্তিবাসীরা। RPF বাহিনীর হামলার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন তৃনমূল প্রার্থী এ পূজা।

- Advertisement -
Latest news
Related news