Monday, May 20, 2024

High Court: নিয়োগ নিয়ে নজির বিহীন ভর্ৎসনার মুখে স্কুল সার্ভিস কমিশন, প্রয়োজনে বরখাস্ত করা হবে পুরো কমিশনকেই! বলল হাইকোর্ট

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে দফায় দফায় আদালতে অপদস্ত হতে হয়েছে রাজ্যের স্কুল সার্ভিস কমিশনকে কিন্তু বুধবার যা হল তা কার্যত নজির বিহীন। গোটা কমিশনকেই আদালতে তীব্র ভর্ৎসনার মুখে স্কুল সার্ভিস কমিশন। এদিন আদালত সমগ্র কমিশনকে বরখাস্ত করার পাশাপাশি নিয়োগ সংক্রান্ত তদন্ত সিবিআইকে দিয়ে করাতে পারেন বলেও জানিয়ে দিলেন পাশাপাশি ক্ষুব্ধ আদালতের ভর্ৎসনায় সিআইএসএফ বাহিনী দিয়ে স্কুল সার্ভিস কমিশনের দখল নেওয়ার কার্যত সতর্কতাও দেওয়া হয়েছে।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

বুধবার কলকাতা হাইকোর্টের এই পর্যবেক্ষণে কার্যত মুখ পুড়ল রাজ্য স্কুল সার্ভিস কমিশনের। নিয়োগে বেনিয়ম নিয়ে প্রশ্নের কমিশনের সচিবকে তীব্র ভর্ৎসনার পাশাপাশি হাইকোর্টে সশরীরে হাজিরা দিয়ে কৈফিয়ত দিতে বলা হয়েছে অনিয়মের নিয়োগের। গতকাল মঙ্গলবারই গ্রূপ-ডি পদে পঁচিশ জনের নিয়োগের সুপারিশের নথি সহ হাজিরার নির্দেশ দেওয়া হয় কমিশন সচিবকে। বুধবার সেই ২৫ জনের নথি জমা করতে পারেনি কমিশন। উল্টে সময় চাওয়া হয়। এরপরেই বিচারপতির তোপের মুখে পড়ে কমিশন।

আদালত কমিশনের কোনও কথায় শুনতে চাইনি। কমিশন বারবার মিনতি করতে থাকে একটু সময় দেওয়ার জন্য। আদালত আজ দুপুর তিনটে পর্যন্ত সময় দিয়েছে। একই সঙ্গে আদালত হুঁশিয়ারি দিয়েছে, ২৫ জন নিয়োগের তথ্য দুপুর তিনটের মধ্যে না দিলে কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হবে। সেক্ষেত্রে সিবিআই তদন্ত দেওয়া হতে পারে। আজ এই হুঁশিয়ারিদিলেন  বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়।
এদিন শুনানিতে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় মন্তব্য করেন,  ‘আপনাদের উপর আমাদের ভরসা নেই।আপনারা কি তদন্ত করবেন আমি জানি।রোজই কিছু না কিছু অনিয়ম সামনে আসছে। এই মামলায় সিবিআই-কে তদন্ত করতে বলব।সিআইএসএফ-কে বলব আপনাদের অফিসের দখল নিতে। পুরো কমিশন বরখাস্ত করে দেব। নিয়োগ নিয়ে এই দুর্নীতি চলতে পারে না’।  নিয়োগের চিঠি কি কমিশনের আঞ্চলিক অফিস থেকে?’কমিশনের কাছে জানতে চাইল হাইকোর্ট।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গতকাল এসএসসি-র গ্রুপ ডি নিয়োগের অনিয়ম জেনে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের চাঁচাছোলা মন্তব্য, ‘এনাফ ইজ এনাফ। স্কুল সার্ভিস কমিশনের  আঞ্চলিক ৫ অফিসের উপরে কোনও নিয়ন্ত্রণ নেই সেন্ট্রাল স্কুল সার্ভিস কমিশনের। কমিশনই আদালতে জানাচ্ছে সেই তথ্য! কীভাবে এমন কমিশন চলতে পারে! কমিশন অফিসে কিছু ছদ্মবেশি দুবৃত্তের উপস্থিতি থাকতে পারে। যারা এমন মেয়াদ উত্তীর্ণ প্যানেলে নিয়োগ করছে। গ্রুপ- ডি এমন অনিয়মের নিয়োগে কমিশনের ব্যাখ্যা সন্তোষজনক না হলে সিবিআই-এর  হাতে তদন্তভার তুলে দেব।’

স্কুলে চতুর্থ শ্রেণির কর্মী নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছিল আগেই। এই নিয়ে নিয়ে মামলার শুনানিতে এসএসসিকে হুঁশিয়ারি। প্যানেল বহির্ভূত নিয়োগ সুপারিশ কীভাবে করেছে স্কুল সার্ভিস কমিশন? তার জন্য ২৪ ঘণ্টার মধ্যে কমিশন সচিবকে তলব করেছে হাইকোর্ট। বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের বেঞ্চ আজ, বুধবার সকাল ১০টার মধ্যে স্কুল সার্ভিস কমিশনের সচিবকে হাইকোর্টে হাজিরার নির্দেশ দিয়েছিলেন।

- Advertisement -
Latest news
Related news