Wednesday, May 22, 2024

Kharagpur Midnapore Weather: দিনেই কাঁপছে খড়গপুর মেদিনীপুর, জুবুথুব ঝাড়গ্রাম সহ জঙ্গলমহল ! মরসুমের রেকর্ড ঠান্ডা সোমবার

For the first time on Monday, the entire Jangalmahal including Kharagpur Medinipur Jhargram and West Midnapore district are trembling in winter during the day. It is difficult to stay indoors even if it is a little warm outside or in the heat of the sun. I can't walk barefoot on the floor of the house. Winter tremors cannot be prevented even by closing doors and windows. On Monday, the first working day of the week, everyone left the school, college office, court and stood under the sun in the open courtyard, busy in the sun. There is no way out because the maximum and minimum temperatures in the entire West Midnapore and Jangalmahal have dropped by about 4 degrees below normal. On the other hand, the minimum temperature has also dropped. The minimum temperature on Monday stood at 9.5 degrees Celsius, down 1 degree from yesterday.

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: সোমবারই প্রথম, দিনের বেলায় শীতে কাঁপছে খড়গপুর মেদিনীপুর ঝাড়গ্রাম সহ গোটা জঙ্গলমহল আর পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা। বাইরে যদিও বা রোদের উত্তাপে সামান্য কিছু উষ্ণতা মিলছে ঘরে থাকাই মুশকিল। ঘরের মেঝেতে খালি পায়ে হাঁটাই যাচ্ছেনা। দরজা জানলা বন্ধ করেও আটকানো যাচ্ছেনা শীতের কাঁপন। সোমবার সপ্তাহের প্রথম কাজের দিনে স্কুল কলেজ অফিস আদালত ছেড়ে সবাই যেন খোলা চত্বরে সূর্যের নিচে দাঁড়িয়ে রোদ পোহাতে ব্যস্ত। না দাঁড়িয়ে উপায় নেই কারন সমগ্র পশ্চিম মেদিনীপুর ও জঙ্গলমহলে সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে প্রায় ৪ ডিগ্রি নীচে নেমে গেছে।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

আর চারদিনের মাথায় বড়দিন। তার আগেই জমজমাট ঠান্ডায় জমে গেছে খড়গপুর মেদিনীপুর আর ঝাড়গ্রাম সহ গোটা পশ্চিম মেদিনীপুর ও জঙ্গলমহল। রবিবারই এই অঞ্চলে প্রথম রেকর্ড পতন ঘটেছিল সর্বোচ্চ তাপমাত্রার। পশ্চিম মেদিনীপুর ও ঝাড়গ্রামে আগের ২দিনের চেয়ে প্রায় ৩ডিগ্রি নিচে নেমে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা দাঁড়িয়েছিল 22.68℃। সোমবার তা আরও ২ডিগ্রি নেমে গেছে। অন্যদিকে সর্বনিম্ন তাপমাত্রারও পতন ঘটেছে। গতকালের চেয়ে ১ডিগ্রি নেমে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা সোমবার 9.5 ডিগ্রি সেলসিয়াসে দাঁড়িয়েছে।

এই মরসুমে ডিসেম্বরেই শীতের ধুন্ধুমার ব্যাটিং চলছে দেশ জুড়ে। রাজধানী দিল্লিতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা নেমে গেছে ৩ডিগ্রির কাছাকাছি। বাংলাতেই বা পিছিয়ে থাকবে কেন! সোমবারের দার্জিলিংয়েও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৩ডিগ্রির গায়ে। গত সপ্তাহ থেকে শুরু হয়েছিল বাংলার পারদপতন। এ সপ্তাহেও তা অব্যাহত। গত দু’দিনের থেকে সোমবার তাপমাত্রার উল্লেখযোগ্য পতন হয়েছে। খোদ কলকাতায় সর্বোচ্চ এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রয়েছে স্বাভাবিকের থেকে অনেকটাই কম। এর জেরে গত সপ্তাহের পরিসংখ্যান পিছনে ফেলে সোমবারই হল যে মরসুমের শীতলতম দিন।

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, সোমবার কলকাতা-সহ রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় আকাশ থাকবে পরিষ্কার। রৌদ্রোচ্ছল আবহাওয়াই থাকবে। কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা কমে হবে ২২.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। যা স্বাভাবিকের থেকে ৪ ডিগ্রি কম। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা নামবে ১১.২ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। যা স্বাভাবিকের থেকেও ৪ ডিগ্রি কম। এ মরসুমে এই প্রথম মহানগরীর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা নামল ১১ ডিগ্রির ঘরে।

তবে কলকাতার তুলনায় জেলার বিভিন্ন জেলার তাপমাত্রা আরও কমেছে। কৃষ্ণনগর, আসানসোল, বাঁকুড়া, পুরুলিয়ার মতো শহরেও কমেছে তাপমাত্রা। সব মিলিয়ে পৌষের শুরু থেকেই জমজম ব্যাটিং শীতের। কিন্তু এখানেই থামছেনা শীতের দাপট। আবহাওয়া দপ্তর জানাচ্ছে আরও ঠান্ডা পড়তে চলেছে আগামী মঙ্গলবারের মধ্যে আরও কড়া শীতের মুখে কাঁসাই উপত্যকার পশ্চিম মেদিনীপুর ও ঝাড়গ্রামে। আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের দক্ষিণবঙ্গের দেওয়া পূর্বাভাসে বলা হয়েছে ২১ ডিসেম্বর মঙ্গলবার সকালের মধ্যে সবকটি জেলার আবহাওয়া শুকনো থাকলেও আগামী দুদিন রাতের তাপমাত্রা ২-৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত কমে যেতে পারে। তারপরের তিনদিনে তাপমাত্রা ২-৩ ডিগ্রি পর্যন্ত বাড়তে পারে বলে পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে। অর্থাৎ আগামী ৪৮ ঘণ্টায় অনেকখানি নামবে তাপমাত্রার পারদ।

 

- Advertisement -
Latest news
Related news