Tuesday, June 25, 2024

Kharagpur Midnapore Jhargram Weather: খড়গপুর মেদিনীপুর ও ঝাড়গ্রামে নামল গড় তাপমাত্রাও! উত্তরের বাতাসে কাঁপছে কাঁসাই উপত্যকা, ৪৮ ঘন্টায় আরও নামবে পারদ

The Kansai Valley is trembling in the severe winter. The city of Kharagpur is trembling. From Kangsavati to Shilabati, from Garbeta to Debra, Kharagpur and Medinipur, two cities on the banks of Kansai, felt very cold in friday and suterday. But on Sunday the weather is in a completely different mood. This is the first time the maximum temperature has dropped by 2 degrees. The meteorological park of Vidyasagar University reported the maximum temperature on Sunday was 2 degrees lower than on Friday. Friday's high was 25.45 and Sunday's high was 22.68. And that is why the weather has become a mess. With the maximum temperature of mercury falling, the average temperature of the day has come down from the previous 2 days. But the cold is not the end.Over the next two days the night temperature may drop to 2-4 degrees Celsius. In the next three days, the temperature is expected to rise by 2-3 degrees.

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: তীব্র শীতে কাঁপছে কাঁসাই উপত্যকা। কংসাবতী থেকে শিলাবতী, গড়বেতা থেকে ডেবরা হয়ে সবং, পিংলা অন্যদিকে ঘাটাল, চন্দ্রকোনা, কেশপুর, দাসপুর জুড়ে হু হু করে বইছে উত্তুরে হিমেল হাওয়া আর তাতেই ভর করে ঠান্ডা গেড়ে বসেছে কাঁসাই উপত্যকায়। কাঁপছে ঝাড়গ্রামের জঙ্গলঘেরা কয়েকশ গ্রাম। শুক্র, শনি ব্যাপক ঠান্ডা অনুভব করেছে কাঁসাই পাড়ের দুই শহর খড়গপুর ও মেদিনীপুর। কিন্তু রবিবার পুরো আলাদা মেজাজ আবহাওয়ার।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

এই প্রথম একলাফে ২ডিগ্রি নেমে গেছে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা। বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আবহাওয়া উদ্যান জানিয়েছে ১৭তারিখ অর্থাৎ শুক্রবার খড়গপুর ও মেদিনীপুর শহরের দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল 25.45℃ আর সর্ব নিম্ন তাপমাত্রা ছিল 9.88℃ আর দিনের গড় তাপমাত্রা ছিল 17.11℃। হিসাব অনুযায়ী এই মরশুমের সর্ব নিম্ন তাপমাত্রা ওই দিনই কিন্তু ঠান্ডার অনুভব রবিবার দুই শহরের কাঁপনই সবচেয়ে বেশি।

হিসাব বলছে রবিবার দিনের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা – 10.75℃। অর্থাৎ শুক্রবারের চেয়ে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রবিবার বেশি কিন্তু রবিবারই হাড় কাঁপানো ঠান্ডায় খড়গপুর মেদিনীপুর সহ পুরো কাঁসাই আর শিলাবতী উপত্যকায়। কারন রবিবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা শুক্রবারের চেয়ে ২ডিগ্রি নীচে নেমে গেছে। শুক্রবার দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা যেখানে ছিল 25.45℃ রবিবার সেই সর্বোচ্চ তাপমাত্রা নেমে দাঁড়িয়ে 22.68℃। আর তাতেই হিসাব গন্ডগোল হয়ে গেছে আবহাওয়ার।

রবিবার দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রার পারদ পড়ার সাথে সাথে দিনের গড় তাপমাত্রা নেমে গেছে আগের ২দিনের চাইতে। শুক্রবার দিনের গড় তাপমাত্রা ছিল 17.11℃ শনিবার যা কিনা নেমেছিল 17.66℃ কিন্তু রবিবার তা দাঁড়িয়েছে 16.37℃ আর এতেই মরশুমের সেরা ঠান্ডা অনুভূত হচ্ছে দুই শহরের সাথে পুরো পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা ও ঝাড়গ্রামে। সন্ধ্যা পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই ঘরের কপাট লেগে যাচ্ছে জঙ্গলমহলের ঘরে ঘরে। রাস্তাঘাট পুরো শুনশান।

তবে ঠান্ডার এটাই শেষ নয়। আবহাওয়া দপ্তর জানাচ্ছে আরও ঠান্ডা পড়তে চলেছে আগামী ৪৮ ঘন্টায়। মঙ্গলবারের মধ্যে আরও কড়া শীতের মুখে কাঁসাই উপত্যকার পশ্চিম মেদিনীপুর ও ঝাড়গ্রামে। খড়গপুর ও মেদিনীপুর শহর কাঁপতে চলেছে আরও শীতে।
রবিবার বিকেলে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের দক্ষিণবঙ্গের দেওয়া পূর্বাভাসে বলা হয়েছে ২১ ডিসেম্বর মঙ্গলবার সকালের মধ্যে সবকটি জেলার আবহাওয়া শুকনো থাকলেও আগামী দুদিন রাতের তাপমাত্রা ২-৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত কমে যেতে পারে। তারপরের তিনদিনে তাপমাত্রা ২-৩ ডিগ্রি পর্যন্ত বাড়তে পারে বলে পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে।

অর্থাৎ আগামী ৪৮ ঘণ্টায় অনেকখানি নামবে তাপমাত্রার পারদ। মঙ্গলবারের মধ্যেই উত্তর-পশ্চিমের হাওয়া দাপট দেখাতে শুরু করবে। আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছেন, বৃষ্টির সম্ভাবনা বর্তমানে বাংলায় আর নেই বললেই চলে। বাংলার আবহাওয়ার ক্যালেণ্ডার জুড়ে এখন শুধুই বিরাজ করবে শীত আর শীত। আবহাওয়াবিদরা মনে করছেন যদি নতুন কোনও আবহাওয়ার পরিবর্তন না আসে তবে ২৫শে ডিসেম্বর থেকে ১লা জানুয়ারি অবধি জমজমাট শীতেই কাঁসাইয়ের দুই পাড়ে জমে উঠতে চলেছে পিকনিকের মজা।

- Advertisement -
Latest news
Related news