Monday, June 17, 2024

Tragic accident: নারায়ণগড়ে জাতীয় সড়কে মুখোমুখি সংঘর্ষ কন্টেনারবাহী লরি ও টেম্পোর! নয়ানজুলির কাদায় মাথা ঢুকে মৃত্যু চালকের

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: মাথা ঢুকে গেছে নয়ানজুলির কাদার ভেতরে। গাড়ির চাপে সে মাথা ওঠানোর উপায় নেই। ফলে কাদার মধ্যেই গেড়ে থাকা অবস্থায় দমবন্ধ হয়ে মৃত্যু হল এক কন্টেনার চালকের। মঙ্গলবার দুপুরে এমনই শিউরে ওঠা দৃশ্য দেখে চমকে উঠলেন পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার নারায়ণগড় থানার বাখরাবাদ এলাকায় ৬০ নম্বর জাতীয় সড়কের পথচারীরা।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে একটি কন্টেনার বোঝাই লরি বনাম ও একটি চানাচুর বোঝাই টেম্পোর মুখোমুখি সংঘর্ষের ফলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাশের নয়ানজুলিতে উল্টে পড়ে লরিটি। আর তার ঠিক আগের মুহূর্তেই দরজা খুলে চালকের শরীরের ওপরের ভাগ গাড়ির বাইরে চলে আসাতেই
এমন ঘটনা। সম্ভবতঃ গাড়িটি উল্টে পড়ার মুহূর্তে চালক গাড়ি ছেড়ে পালাতে গিয়ে এই বিপত্তি।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বেলদার দিক থেকে নারায়ণগড় দিকে যাচ্ছিল একটি চানাচুর ভর্তি টেম্পোটি। বিপরীত দিক থেকে আসছিল ওই কন্টেনার বাহিত লরিটি। ৬০নম্বর জাতীয় সড়কে দ্রুত গতিতে ছুটতে থাকা টেম্পো তার আগে থাকা অন্য একটি গাড়িকে ওভারটেক করতে গিয়ে সরাসরি কন্টেনার বোঝাই লরির মুখে গিয়ে পড়ে। হঠাৎই সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ বাঁধে। সংঘর্ষে পাশেই একটি নয়ানজুলিতে উল্টে যায় কন্টেনার গাড়িটি।

দুর্ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ওই কন্টেনার গাড়ির চালকের। গুরুতর ভাবে জখম হয় টেম্পো গাড়িটির চালক ও খালাসি। স্থানীয়রা দ্রুত তাঁদেরকে উদ্ধার করে মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করে। দুর্ঘটনায় মৃত ওই কন্টেনার গাড়ির চালকের নাম পরিচয় জানা যায়নি। পুলিশ বহু কসরৎ করে কন্টেনার চালকের মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। দুটি গাড়িই বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে তদন্তের স্বার্থে। চালকের লাইসেন্স ধরে চালকের পরিচয় জানার চেষ্টা করা হচ্ছে।

এক পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন, সাধারণভাবে বিপদের গুরুত্ব বুঝে শেষ মুহূর্তে চালক গাড়ি ছেড়ে বাইরে বেরিয়ে আসার চেষ্টা করেন। অনেকে সফলও হন। প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে এক্ষেত্রেও চালক শেষ মুহূর্তে গাড়ি ছেড়ে বেরিয়ে আসার চেষ্টা করেছিলেন কিন্তু তাঁর শরীর অথবা জামা কাপড়ের কোনও অংশ গাড়িতে আটকে যায় আর সেই কারণে দরজা খুললেও পুরো বেরুনো সম্ভব হয়নি তাঁর পক্ষে। তাঁর শরীর অর্ধেক ঝুলে পড়ে বাইরে এবং তার ওপর দরজার চাপ পড়ায় মাথা ঢুকে যায় জলকাদা ভর্তি গর্তে।

- Advertisement -
Latest news
Related news