Tuesday, June 25, 2024

কুম্ভ কথা ( পর্ব – ৪ )

- Advertisement -spot_imgspot_img

কুম্ভ কথা- ৭


রাত্রি আটটা। সকাল বেলা বেরিয়েছি। সোমনাথদা বার চারেক ফোন করেছেন।  বাবা কোথায়….খেয়েছিস তো। আশ্বস্ত করে আবার মিশে যাই জনস্রোতে।- শরীর থক যাতে হ্যায়, প্যায়র ভি থক যায়েঙ্গে, এ দোনো আঁখে অউর এ মন, এ দিল কভি নহি থকেঙ্গে।  আয়ে হো, জি ভরকে দেখ লো, অনুভব করো এ বিশাল প্রকৃতি কো, কউন জানে কব কিসকো কউন অউর কিস চিজ মিল যায়ে। ওঁ নমঃ শিবায়।খুশ রহো। জিতা রহো।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে

ফিরতি পথে পথচলতি সাধু বাবা হৃদয়ের কথা বলেন। সঙ্গমের নৌকার মাঝি র কথা শোনাই সাধু বাবা কে।  -ভাইসাব, হামারা দাদা ,পরদাদা সব লোগ নাইয়া চালাতে  হ্যায় পীড়ীও সে….কয়ি কুম্ভ দেখে হ্যায়…কিতনা সাধু সন্ত কো নাইয়া সে পার কর চুকা হামলোগোনে….বচপন সে ডুবকি লাগাতে রহে তয়রতে রহে …হামকো তো কুছ মিলা নেহি…ওহি নাও চালাতে রহে… অউর কোঁড়োরো লোগ কিসমত বদলনে লিয়ে ইঁহা  আতে হ্যায়….শায়দ কুছ মিল যায়ে….ভাইসাব আপ কেয়া শোচতে হো…সাধু বাবা হাসেন।

মাঙনে সে কুছ মিলতা হ্যায় কেয়া।সবহি লোগ মাঙ রহে হ্যায় ভগবান সে….কিসকি শুনে ভগবান…..আপ ভি তো কুছ দো …অউর এক শুনে তো দুসরি মাঙ…তিসরি… অট্টহাসি তে ফেটে পড়েন সাধু বাবা। সময় হ্যায় তেরে পাশ …বয়ঠ| গঙ্গার চরে বসে কথা হয়।রাত বাড়ে। গাঁজার ছিলিম জ্বলে ওঠে।বেজে ওঠে আবার ফোন সোমনাথদার।  ধরি না | কানে বাজতে থাকে কিসকি শুনে ভগবান…কেয়া শুনে…. কুছ তো দো…..

কুম্ভ কথা- ৭


হাওড়ার নীলু।মেলায় পরিচয়।দাদা হতে বেশি সময় লাগেনি।ন’মাসের বাচ্চা মেয়ে কে রেখে এসেছে। স্নান করতে গিয়ে বাচ্চাদের স্নান দেখে বলে উঠল, দাদা পরের বার ওদের কে নিয়ে আসব,আসবই। ভীড় বাড়ছে। স্বচ্ছ কুম্ভ, দিব্য কুম্ভ এবার অনন্য।  মাছ , মাংস, ডিম ,রোল, চাউমিন, সিগারেট , বিড়ি, গুটকা  বর্জিত কুম্ভ নগরীর ২৪কিমি এলাকা। অজস্র টয়লেট, পানীয় জলের ব্যবস্থা, কাপড় ছাড়ার জায়গা, প্রতি কিমি অন্তর সরকারী চিকিৎসা ব্যবস্হা, এটিএম,সুন্দর চওড়া রাস্তা, নিশ্ছিদ্র প্রহরা, স্হল পুলিস, জল পুলিস, CRPF, Spg, Army, Helicopter , অ্যাম্বুলেন্স, ভ্রাম্যমান চিকিৎসালয়, ঝাড়ুদার, মেথর, …..যোগী আদিত্যনাথ কে লাখো সালাম।  আলাদা প্রশাসন। আলাদা ডি এম, এডিএম, কুম্ভ নগরীর জন্য। কথা ও ছবি তে ধরা যায় না এ আয়োজন।

লোক ঢুকছে পিলপিল করে। কুম্ভ নগরী তে আজ থেকে চার চাকা বন্ধ । কাল থেকে দুচাকা ও বন্ধ হয়ে যাবে। পায়ে হেঁটে ,হাতে মাথায় সামান নিয়ে লোক আসছে কুম্ভতে।  লালটুন নিশান, হাথী নিশান, পাঞ্জা নিশান ইত্যাদির সন্ধানে। যারা নিশানায় পৌঁছতে পারলেন না , তাদের জন্য ১২সেক্টরে নিশুল্ক রহনে অউর খানে কে লিয়ে ভব্য আয়োজন কিয়া গয়া হ্যায়। সাবাশ!

- Advertisement -
Latest news
Related news