Sunday, July 21, 2024

Ghatal Crime: ঘাটালে প্রতিহিংসা চরিতার্থ করতে দাদার বাড়িতে ডাকাতির ছক! তাড়া করে ধরল গ্রামবাসীরা, উদ্ধার আগ্নেয়াস্ত্র, গুলি, গ্রেপ্তার গুণধর ভাই সহ তিন দুষ্কৃতি

- Advertisement -spot_imgspot_img

নিজস্ব সংবাদদাতা: সম্পত্তি বিবাদ, বকেয়া পাওনা আদায়ে ব্যর্থতার জেরে ভাড়া করা ডাকাত নিয়ে দাদার বাড়িতে হানা দিয়েছিল ছোট ভাই কিন্তু শেষ রক্ষা হলনা। গ্রামবাসীদের সম্মিলিত প্রতিরোধে ব্যর্থ হল সেই চেষ্টা। গ্রামবাসীরাই তাড়া করে ধরে ফেলল ছোট ভাই সহ ভাড়াটে ডাকাতদের।

আরো খবর আপডেট মোবাইলে পেতে ক্লিক করুন এখানে
উদ্ধার করা হচ্ছে রিভলবার

উদ্ধার হয়েছে ডাকাতির জন্য নিয়ে আসা একটি রিভলবার ও বেশ কয়েকরাউন্ড গুলি। শুক্রবার পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার ঘাটাল থানার ঘটনায় রীতিমত স্তম্ভিত এলাকাবাসী। প্রতিহিংসা মেটাতে মানুষ এতদুর অবধি যেতে পারে ভাবতেই পারছেননা ওই গ্রামের বাসিন্দারা।

পুলিশ এবং স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে শুক্রবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে ঘাটাল থানার সুলতানপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের কামদেবপুর গ্রামে। ওই গ্রামের জনৈক বাসিন্দা কালীপদ জানার বাড়িতে হানা তিন দুষ্কৃতির একটি দল। তাদের নাক মুখ কাপড় দিয়ে বাঁধা। ঘটনাক্রমে কালীপদ বাড়িতে ছিলেননা। তাঁর এক ছেলেকে মারধর শুরু করে দুষ্কৃতি দলটি। চিৎকার চেঁচামেচিতে ছুটে আসেন স্থানীয়রা। অত্যান্তর না দেখে পালাতে যায় দুষ্কৃতিরা। একজনকে ঘটনাস্থলেই ধরে ফেললেও ২জন পালাতে থাকে। তাদের ধাওয়া করে কিছু গ্রামবাসী। পরে তাদেরকেও ধাওয়া করে ধরে ফেলা হয়।

জানা গেছে কালিপদ ছেলের সঙ্গে বচসা ও ধস্তাধস্তির সময় এক দুষ্কৃতির পকেট থেকে একটি রিভলভার পড়ে যায়। রিভলবার সহ ধৃতদের ধরে খবর দেওয়া হয় ঘাটাল থানায়। ঘাটাল থানার ওসি সহ পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। রিভলভার সহ আটক তিনজনকে থানায় নিয়ে যায় ঘাটাল থানার পুলিশ।রিভলভারের সাথে চার রাউন্ড গুলিও উদ্ধার হয়েছে বলে খবর।পুরো ঘটনা খতিয়ে দেখে তদন্তে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে , আগে থেকেই দুই ভাইয়ের সম্পত্তিগত বিবাদ ছিল। এরই মধ্যে কালিপদ ছোট ভাই অসিত জানা যে কিনা ওই থানারই নারায়নচকের বাসিন্দা তার জামাইয়ের কাছ থেকে কিছু টাকাও ধার করে। বহুদিন হয়ে যাওয়ার পরও সেই টাকা ফেরত দিচ্ছিলেন না বড় ভাই। এনিয়ে ছোট ভাই অসিত তার বড় ভাইকে চাপ দিত। কিন্তু কোনও কিছুতেই কিছু না হওয়ায় এই ছক কষে।

অসিতের দুই সাগরেদ গোপীনাথ খাঁ ও শ্রীকান্ত সামন্ত । তাদের বাড়ি চন্দ্রকোনার আগড়া ও আর একজনের বাড়ি কুলদহতে। ধৃত তিনজনকে আজ ঘাটাল মহকুমা আদালতে পেশ করে পুলিশ তিনদিনের জন্য নিজস্ব হেফাজতে নিয়েছে।

- Advertisement -
Latest news
Related news